অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

‘সরকার চেয়েছিল যাতে এই বৈঠকটি না হয়’ – খালেদা জিয়া


Khaleda Zia

ভারতের প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখার্জির সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কেন সাক্ষাৎ করেননি এ নিয়ে নানা যুক্তি, নানা আলোচনা-সমালোচনা আছে। এ নিয়ে বিভিন্ন জন বিভিন্ন ব্যাখ্যা দিয়েছেন। কারো কারো মতে জামায়াতের হরতালের কারণে তিনি সাক্ষাৎ করতে যাননি। ঢাকা ও দিল্লির গণমাধ্যমে এ নিয়ে বিস্তর লেখালেখি হয়েছে। কূটনৈতিক পর্যায়েও এ নিয়ে কম কথা হয়নি। ঢাকার রাজনৈতিক অঙ্গন সমালোচনা মুখর ছিল। এ সবের মধ্যে খালেদা জিয়া ছিলেন নিশ্চুপ। ভারতের সানডে গার্ডিয়ানের কাছে এ নিয়ে তিনি মুখ খুলেছেন। নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের পরপরই দেয়া সাক্ষাতকারে খালেদা বলেন, তার কাছে খবর ছিল প্রণব বাবুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে হামলা হতে পারে। সেটা হতে পারতো প্রাণনাশের মত ঘটনা। প্রেসিডেন্ট যেখানে অবস্থান করছিলেন তার কাছেই একটি পেট্রল বোমা বিস্ফোরিত হয়। তার এই পথ দিয়েই যাওয়ার কথা ছিল। জামায়াত তো আপনার সঙ্গে আছে? তারা কেন আক্রমণ করবে? খালেদা বলেন, এটাইতো কথা। যদি সেদিন তার ওপর কোন হামলা হতো তখন জামায়াতে ইসলামীর ওপর দোষ চাপানো হতো।

বেগম জিয়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তার সাক্ষাৎ বর্ণনা করতে গিয়ে সানডে গার্ডিয়ানকে বলেন, বাংলাদেশ সরকার চেয়েছিল যাতে এই বৈঠকটি না হয়। এ প্রসঙ্গে তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীর উক্তি স্মরণ করেন। বলেন, তিনি তো এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, মোদির সঙ্গে খালেদার বৈঠকের কোন সম্ভাবনা নেই। এর মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ভারত জানিয়ে দেয় বৈঠক হবে। শেষ পর্যন্ত বৈঠক হয়। যা একটি সফল বৈঠকে রূপ নেয়, মন্তব্য করেন খালেদা। তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে শুধু শুধু ভারত-বিরোধী বলে প্রচার করা হয়। আসলে তিনি ভারত বিরোধী নন। এ সম্পর্কে ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

XS
SM
MD
LG