অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে নোট বাতিলের ফলে চরম সমস্যায় পড়েছে জাল নোটের কারবারীরা


ভারতে নোট বাতিলের ফলে চরম সমস্যায় পড়েছে জাল নোটের কারবারীরা। মেঘালয়ে যারা বাংলাদেশের উন্মুক্ত আন্তর্জাতিক সীমান্ত ব্যবহার করে জাল নোটের ব্যবসা চালায়, তাদের মাথায় হাত পড়েছে। এমনটাই জানাচ্ছে ভাতৃতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী - বিএসএফ।বাংলাদেশের সঙ্গে মেঘালয়ের ৪৪৩ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে। এ মাসের শুরুতে ৫০০ ও ১,০০০ টাকার নোট বাতিলের পর বিএসএফকে একবারও ভারতীয় জাল নোট বাজেয়াপ্ত করতে হয়নি। এ বছর এখনও পর্যন্ত ৬৩,৫০০ জাল টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী। কিন্তু নোট বাতিলের পর থেকে জাল নোট পাচারের কোনও ঘটনা চোখে পড়েনি তাদের।

গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, জাল নোটের কারবারিরা মতলব ভেঁজেছিল, বড় আকারে ৫০০ ও ১,০০০ টাকার জাল নোট বাজারে ছাড়বে তারা যাতে ভারতীয় অর্থনীতিকে নড়বড়ে করে তোলা যায়। কিন্তু কেন্দ্র ওই দুটি নোটই কোনও নোটিশ ছাড়া বাতিল করে দেওয়ায় তাদের ব্যবসা কার্যত বন্ধ।মেঘালয়-বাংলাদেশ সীমান্ত অত্যন্ত দুর্গম হওয়ায় এখানে পাহারা দেওয়া কঠিন। তাই জাল নোটের কারবারিরা জঙ্গি ও দুষ্কৃতীদের হাত দিয়ে ভারতে জাল নোট ছড়িয়ে দিতে ওই এলাকাই ব্যবহার করে। বিএসএফ জানিয়েছে, গত ১০ বছরে এই সীমান্ত এলাকা থেকে ১০ লাখ টাকা মূল্যের জাল নোট উদ্ধার করেছে তারা। এই কাজ করতে গিয়ে ধরা পড়েছে ১৪জন ভারতীয় ও ৩৭জন বাংলাদেশি নাগরিক। সীমান্তের সাউথ গারো হিলস, সাউথ ওয়েস্ট খাসি হিলস, ইস্ট খাসি হিলস, ওয়েস্ট ও ইস্ট জয়ন্তিয়া হিলস জেলাগুলিতে এই জাল নোটের রমরমা। কিন্তু নোট বাতিলের ফলে এই ব্যবসা কার্যত মুখ থুবড়েই পড়েছে।

XS
SM
MD
LG