অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের মহিলাদের ওপর অপরাধের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ সুপ্রিম কোর্টের


ভারতের মহিলাদের ওপর অপরাধের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাওয়া নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করল দেশের শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্ট।একটি মামলার শুনানির প্রেক্ষিতে সুপ্রীম কোর্টে বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি এ এম খানউইলকর এবং বিচারপতি এম এম সান্ত্বনাগৌদরের নেতৃত্বধীন বেঞ্চ বলেছেন, কেউ বলতে পারে কেন একজন মহিলা এদেশে একটু শান্তিতে থাকতে পারবে না? শীর্ষ আদালতের মতে, কেউ কোনও মহিলাকে জোর করে ভালবাসতে বাধ্য করতে পারে না। কারণ, তা ব্যক্তিগত স্বাধীন সিদ্ধান্ত। একজন মহিলার অধিকার আছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার তিনি কাকে ভালবাসবেন, কাকে নয়। কেউ তাঁকে জোর করে একজনকে ভালবাসাতে পারেন না। এটাই ভালবাসার নিয়ম, পুরুষকে এটা মানতে হবে।

প্রসঙ্গত বলা যেতে পারে এক কিশোরীকে উত্যক্ত করা ও আত্মহত্যা প্ররোচনা দেওয়ার জন্য এক ব্যক্তিকে দোষী সাব্যস্ত করে সাত বছরের সাজা শোনায় হিমাচল প্রদেশের হাইকোর্ট।কিশোরীর মৃত্যুকালীন জবানবন্দিকে হাতিয়ার করেছিল উচ্চ আদালত। রায়ের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে আবেদন করেন ওই ব্যক্তি।সেই মামলার শুনানি চলার সময় সেখানে কিশোরীর জবানবন্দি নিয়ে যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ব্যক্তির আইনজীবী। তাঁর দাবি, মেডিক্যাল রিপোর্ট অনুযায়ী, সেই সময় কথা বলা বা লেখার ক্ষমতা ছিল না কিশোরীর।এপ্রসঙ্গে, শীর্ষ আদালতের মন্তব্য, আপনি এমন পরিস্থিতি তৈরি করেছিলেন, যার ওই কিশোরী আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে বাধ্য হন।

XS
SM
MD
LG