অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফ্রান্সে সব হিসাব নিকাষ পাল্টে গেছে। বিদায় নিয়েছে প্রচলিত ধারার রাজনীতি। মধ্যপন্থি ইমানুয়েল ম্যাক্রন এবং উগ্র দক্ষিণপন্থি মারিন লা পেন বাজিমাত করেছেন। এখন দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াই হবে ম্যাক্রন আর লা পেনের মধ্যে।

৭ই মে নির্ধারিত হবে কে হবেন আধুনিক ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট। রোববারের নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৭৯ ভাগ। এর মধ্যে ইমানুয়েল ম্যাক্রন ভোট পেয়েছেন ২৩ দশমিক ৯ ভাগ। আর মারিন লা পেন পেয়েছেন ২১ দশমিক ৪ ভাগ। লড়াইটা হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি।

অধ্যাপক পল স্মিথের ভাষায় ফ্রান্স এই মুহুর্তে একটি অনাবিস্কৃত ভূখন্ড। যা আবিস্কার করার যাত্রা সবে শুরু হয়েছে।সাবেক ব্যাংকার ম্যাক্রনকে নমনীয় ডান ও নমনীয় বামের মিশেলে মধ্যপন্থি মনে করা হয়। অন্যদিকে এই নির্বাচনে ব্রেক্সিট ও ট্রাম্প সমর্থক মারিন লা পেনের উত্থানকেও ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। রিপাবলিকান ও স্যোসালিস্ট পার্টির পরাজিত দুই প্রার্থী ইতোমধ্যেই ম্যাক্রনের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেছেন। প্রাথমিক ফলাফলের প্রতিক্রিয়ায় ম্যাক্রন বলেছেন, ফ্রান্সের রাজনৈতিক ইতিহাসে একটা পৃষ্ঠা উল্টাতে যাচ্ছি। আর লা পেন বলেন, নির্বাচনের ফলাফল ঐতিহাসিক, ফ্রান্সকে রক্ষা করার দায়িত্ব আমার উপর বর্তেছে।

XS
SM
MD
LG