অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগানিস্তানের নির্বাচন সম্পর্কে এক্সিট পোলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া্:ব্র্যাক কর্মকর্তা

  • আনিস আহমেদ

আফগানিস্তানের একটি নির্বাচনী বুথ

কাবুলে অবস্থিত ব্র্যাকের কান্ট্রি প্রধান ফজলুল হক বলেছেন যে আফগানিস্তানে সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের সময়ে যেমনটি আশংকা করা গিয়েছিল যে বড় রকমের সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটবে , তেমন মারাত্মক কোন ঘটনা ঘটেনি যদি ও এ পর্যন্ত প্রায় ষোল জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে একান্ত এক সাক্ষাৎকারে জনাব হক বলেন যে অনেকেই মনে করেছিলেন যে নির্বাচন পরবর্তী সময়েও বড় রকমের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটতে পারে কিন্তু কার্যত তেমন কিছুই ঘটেনি।

তিনি বলেন যে আফগানিস্তানে ৫ লক্ষ ভোটারের মধ্যে প্রায় এক লক্ষ লোক ভোট দিয়েছেন , অর্থাৎ প্রায় কুড়ি শতাংশ লোক ভোট দিয়েছেন। এই স্বল্প সংখ্যক লোকের ভোটদান নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে কী না এ প্রশ্নের জবাবে ফজলুল হক বলেন যে সে রকম সমস্যা সম্ভবত দেখা দেবে না। তবে তিনি বলেন যে কোথাও কোথাও নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে। ভূয়া ভোটার সম্পর্কেও অভিযোগ উঠেছে বিশেষত দক্ষিণের সীমান্ত এলাকায় এ রকম ভুয়া্ রেজিস্ট্রেশান কার্ড ও দেওয়া হয়েছে ভোটদাতাদের এমন অভিযোগ রয়েছে । তা ছাড়া ব্যালট পেপারের সংখ্যা নিয়েও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তবে জনাব হক মনে করেন যে সব মিলিয়ে , প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে যে যতটুকু ভোট হয়েছে সেটা খুবই গ্রহণযোগ্য এবং ফলাফলে এর কোন নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।

এক্সিট পোলে বুথ ফেরত ভোটদাতাদের মন্তব্য ছিল মিশ্র। এই ব্র্যাক কর্মকর্তা বলেন যে যারা ভোট দিয়েছেন তারা এর মাধ্যমে গণতান্ত্রিক পরিবেশ কামনা করেন এবং একে দেশে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ফিরে আসার একটা বড় সুযোগ বলে মনে করেন । পাশাপাশি এই নির্বাচনে যারা অংশ নেননি , তারা মনে করেন যে এই নির্বাচন তাদে নিজস্ব নির্বাচন নয় , অতএব এতে কোন সুফল আসবে না। তবে নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল আসতে এখনও অনেক সময় লেগে যাবে বলে মনে করেন ফজলুল হক।

XS
SM
MD
LG