অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের সদস্যরা আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর হাতে নিহত


কুষ্টিয়ায় গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে জাকির হোসেন নামে এক যুবলিগ নেতা নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে গত দু দিনে যুবলীগের এক নেতা , ছাত্রলীগের এক নেতা , সাবেক এক নেতা সব মিলিয়ে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ক্ষমতাসীন আওয়ামি লীগের অঙ্গসংগঠনের মোট তিন জন নিহত হয়েছেন ।

পুলিশের ভাষ্য মতে জেলা শহরে জাতীয় শোক দিবসের র‍্যালির পর দুই পক্ষের সংঘর্ষে আওয়ামী লীগেরকর্মী সবুজ নিহত হওয়ার ঘটনায় করা মামলার সন্দেহভাজন আসামি এই জাকির।পুলিশ দাবি করেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে শহরের পাশে জগতি গ্রামের একটি বাগানে ওই বন্দুক যুদ্ধ হয়। তবে, প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে পত্র পত্রিকার অনলাইন এডিশনে বুধবার বলা হয়েছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলবাড়িয়ায় একটি মাঠের পাশ থেকে জাকিরকে ডিবি পরিচয় দেওয়া তিনজন গাড়িতে তুলে নিয়ে যান। ঘটনাস্থল থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র, দুটি ধারালো অস্ত্র ও দুটি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়ে বলেছে এ ঘটনায় পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন।

এদিকে, মাত্র দুইদিনে আওয়ামী লিগের অঙ্গ সংগঠনের তিন কর্মী আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার ঘটনা ছিল বুধবারের বহুল আলোচিত বিষয়। এ সম্পর্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জমান কামাল সাংবাদিকদের বলেন অপরাধী যেই হোক তাকে ছাড় দেয়া হবে না। তবে তিনি এসকল ঘটনাকে ক্রসফায়ার বলতে অস্বীকার করে একে বন্দুক যুদ্ধ বলে বর্ণনা করেন।

XS
SM
MD
LG