অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উদ্বেগ জনক পারমানবিক অস্ত্র ভাণ্ডার বৃদ্ধির প্রতিযোগিতা চলছে


ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে পারমানবিক অস্ত্র ভাণ্ডার বৃদ্ধির প্রতিযোগিতা চলছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেশনাল রিসার্চ সার্ভিসের প্রতিবেদনে যে ভীতিকর তথ্য উঠে এসেছে তাকে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোর জন্য উদ্বেগ জনক বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের একজন নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ । বিশিষ্ট ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টার এর প্রতিরক্ষা ও কৌশলগত বিষয়ক সম্পাদক অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহেদুল আনাম খান ভয়েস অব আমেরিকাকে বলেছেন ঐতিহাসিক ভাবে বৈরী এ দুটি দেশ যদি কখন পারমানবিক যুদ্ধে লিপ্ত হয় তবে তা শুধু তাদের দেশের জন্য নয় বরং নিকট প্রতিবেশী দেশগুলোর জন্যও ভয়ংকর পরিণতি ডেকে আনতে পারে । মার্কিন কংগ্রেশনাল রিসার্চ সার্ভিসের প্রতিবেদনটি সে দেশের আইন প্রণেতাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে যাতে বলা হয়েছে ওই দুই দেশের পারমানবিক অস্রের প্রতিযোগিতা দক্ষিণ এশিয়াকে পারমানবিক সংঘাতের ঝুঁকিতে ফেলেছে । বৈরী এ দুই দেশ ইতিপূর্বে অন্তত তিনটি পুরনাঙ্গ যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিল এবং তাদের মধ্যে কাশ্মীর ও সন্ত্রাস নিয়ে উত্তেজনা এখনো অব্যাহত রয়েছে । সম্প্রতি পাকিস্তানের সেনাবাহিনীরপক্ষ থেকে স্পষ্টতই জানিয়ে দেয়া হয়েছে ভারত-পাকিস্তান যদি যুদ্ধে লিপ্ত হয় তবে পাকিস্তান পারমানবিক বোমা ব্যাবহার করতে পারে । শাহেদুল আনাম খান বলেন পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে পারমানবিক যুদ্ধের কারনে বাংলাদেশের জন্য যেটা সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হবে তা হচ্ছে ভারতের নিকটতম প্রতিবেশী হিসেবে এর কাছাকাছি কোন পারমানবিক বোমার বিস্ফোরণ ঘটার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায়না । ভারত ও পাকিস্তানের পরমাণু বোমার যে ডেলিভারি ব্যবস্থা রয়েছে তার আওতায় সমগ্র দক্ষিণ এশিয়া নয় তার বাইরের এলাকাও রয়েছে। শাহেদুল আনাম খান বলেন বাংলাদেশের উচিত হবে কূটনীতিক ক্ষেত্রে সচেষ্ট হওয়া যাতে বিশ্বকে পরমাণু বোমা মুক্ত করা সম্ভব হয় ।


XS
SM
MD
LG