অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আলজেরিয়োরা বলছে জঙ্গিদের আটক করা হয়েছে , গ্যাস স্থাপনায় আরও মরদেহ পাওয়া গেছে


আলজেরিয়ার কর্মকর্তারা বলছেন যে কথিত ইসলামপন্থিদের হানা দেওয়া প্রাকৃতিক গ্যাসের স্থাপনায় নিরাপত্তা কর্মীরা পণবন্দীদের আরও মৃতদেহ খুজে পেয়েছে যাদেরকে জঙ্গিরা এ সপ্তায় জিম্মি করে হত্যা করে।

এ দিকে কর্মকর্তারা বলছেন যে রোববার আলজেরীয় বিশেষ বাহিনী আলজিরিয়ো পুর্বাঞ্চলের আমেনাস স্থাপনায় ৫ জন জঙ্গিকে আটক করেছে। তাছাড়া তারা আরও ২৫টি মৃতদেহের সন্ধান পেয়েছে। তারা বলছে যে মৃতদেহগুলো সেই সব শত শত আলজেরীয় ও বিদেশি পণবন্দীদের মধ্যে থেকেই হবে যারা কীনা ঐ স্থাপনায় বুধবার কাজ করার সময়ে জঙ্গিদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়ে। শনিবার এক রক্তক্ষয়ী আক্রমণে আলজিরিয়ার নিরাপত্তা বাহিনী ঐ জঙ্গিদের সেখান থেকে উৎখাত করে।

আলজিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বলেছে যে ঐ অভিযানের সময়ে জঙ্গিরা ৭ জন পণবন্দীকে হত্যা করে এবং আলজেরীয় বাহিনী ১১ জন অপহরককে হত্যা করে। এর আগে শনিবার আলজিরিয়ার অভ্যন্তরীণ মন্ত্রক জানিয়েছিল যে সে দেশের পণবন্দী সংকটের অবসান ঘটেছে তবে এই প্রক্রিয়ায় তাদের ২৩ন জন পণবন্দী এবং ৩২ জন জঙ্গি নিহত হয়। রোববার একটি ইসলামি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ভিডিওতে জঙ্গি নেতা মুখতার বেল মুখতার আল ক্বায়দার পক্ষ থেকে এই আক্রমণের দায় স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন যে মুসলিম ও পশ্চিমি দেশগুলোর ৪০ জন জঙ্গি এই অভিযান চালায়। তিনি বলছেন তার কথায় মালির জনগণের ওপর বোমা বর্ষণ বন্ধ করলে তারা পশ্চিমের সঙ্গে আলোচনা করতে রাজি আছে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন আজ জানিয়েছেন যে তিন জন ব্রিটিশ নাগরিকের নিশ্চিত মৃত্যু হয়েছে এবং মনে করা হচ্ছে আরও তিন জন নিহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা এর আগেই জানান যে মনে করা হচ্ছে একজন আমেরিকান প্রাণ হারিয়েছেন।

তবে দূর্গম অঞ্চলে পরিচালিত ঐ উদ্ধার মিশন সম্পর্কে বিস্তারিত তেমন কিছু জানা যায়নি। ওয়াশিংটনে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা অপহরণকারিদের কর্মকান্ডের নিন্দে করে বলেন যে এ জন্যে তারা একক ভাবে দোষী। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী লিওন প্যানেটা আমেরিকানদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দে করে বলেন

প্যানেটা বলছেন যে যুক্তরাষ্ট্র যেমন তার নিজের শহরে সন্ত্রাসী আক্রমণ মেনে নিতে পারে না , তেমনি বিদেশেও যুক্তরাষ্ট্র তার নাগরিক ও স্থাপনার ওপর কোন হামলা মেনে নেবে না। বিশ্বের কোথাও আল ক্বায়দা নিরাপদ ঘাটি হোক , সেটাও যুক্তরাষ্ট্র মানতে পারে না।

XS
SM
MD
LG