অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সমুদ্র পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় সাগর থেকে মিয়ানমার নৌবাহিনী যে সব অভিবাসন প্রত্যাশীকে আটক করেছিল, তাদের মধ্যে থেকে আরও ১৫৯ জন বাংলাদেশী সোমবার দেশে ফিরে এসেছেন। মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ পতাকা বৈঠকের পরে তাদের বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি’র হাতে হস্তান্তর করেছে। এ নিয়ে ৫০১ জন বাংলাদেশী মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরে এসেছেন। এ সম্পর্কে বলেছেন বিজিবি’র কক্সবাজারের অধিনায়ক লে. কর্নেল রবিউল ইসলাম।
সোমবার দেশে ফিরে আসা ১৫৯ জন বাংলাদেশীর মধ্যে ৮০ জনের বাড়ী নরসিংদী জেলায়। তাদের বর্তমানে কক্সবাজারে অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। পরে আত্মীয়-স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
ঢাকায় কর্মকর্তারা বলছেন, মিয়ানমার থেকে আরও ৪৫০ জন বাংলাদেশী দেশে ফিরে আসার অপেক্ষায় রয়েছেন। বর্তমানে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ তাদের নাম-ঠিকানা যাচাই-বাছাই করছে। এদিকে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড এবং মিয়ানমার থেকে এ পর্যন্ত ১৮১৬ জন বাংলাদেশী দেশে ফিরে এসেছেন। আরও প্রায় ৮৫০ জন দেশে ফেরার উপেক্ষায় রয়েছেন। অভিবাসন প্রত্যাশী হিসেবে সমুদ্র পথে যাওয়া বাংলাদেশীদের - যাদের আশ্রয় হয়েছে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড এবং মিয়ানমারে তাদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়াটি বেশ ধীরগতিতে চলছে। এর কারণ সম্পর্কে বলেছেন, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম-এর মুখপাত্র আসিফ মুনীর। বিদেশে আটক যারা আছেন এবং তাদের স্বজনরা কামনা করছেন, দ্রুত যেন ওই সব বাংলাদেশীকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়।...ঢাকা থেকে আমীর খসরু

XS
SM
MD
LG