অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিশর পরিস্থিতি নিয়ে অধ্যাপক আলী রীয়াজের বিস্তারিত বিশ্লেষণ

  • আনিস আহমেদ

মিশরের পরিস্থিতি ক্রমশই জটিল হয়ে উঠছে । একদিকে যেমন মোরসীর সমর্থক এবং তার বিরোধীদের মধ্যে সংঘাত হয়েছে , অন্যদিকে ঠিক তেমনি সেনাবাহিনীর সঙ্গে ও মংঘর্ষ হয়েছে মোরসি সমর্থকদের । এ সব বিষয় নিয়ে এবং মিশরে গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে , ইলিনয় স্টেট ইউনিভার্সিটির গভর্ণমেন্ট এন্ড পলিটিক্স বিভাগের প্রধান অধ্যাপক আলী রীয়াজ কথা বলেছেন ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা বিভাগের সঙ্গে । মিশরে সামরিক বাহিনীর হস্তক্ষেপ এবং সেখানকার প্রশাসনিক পালাবদলের সংজ্ঞা নিয়ে এক রকমের বিতর্ক চলছে, একে মিশরের দ্বিতীয় বিপ্লব কি বলা যাবে , না কি এ কেবলই সামরিক অভুত্থান , এ সব প্রশ্নও উঠছে যে যদি সামরিক অভূত্থানই হয় তা হলে তাহরির স্কোয়ারে মোরসি বিরোধীদের কি ভূমিকা ছিল, এই যে Battle of Semantic বা পরিস্থিতির সংজ্ঞা নিয়ে যে একটা বিতর্ক রয়েছে অধ্যাপক আলী রীয়াজ সে কথা মেনে নিয়ে ও বলেন যে প্রধানত মর্মবস্তুর দিক থেকে এটি একটি সামরিক অভূত্থান বা ক্যু । তবে অধ্যাপক রীয়াজ একে ক্যু না বলার পেছনে কিছু অভ্যন্তরীণ ও কুটনৈতিক কারণ তুলে ধরেন। তিনি স্মরণ করিয়ে দেন যে ২০১১ সালে মুবারকের বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল সেটা ও আসলে সামরিক অভুত্থান এবং তখন সেটিকে সামরিক অভুত্থান না বলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বলা হয়েছিল তাই প্রশ্ন উঠতেই পারে যে একই রকম পরিস্থিতিতে এখন কেন সেটাকে সামরিক অভূত্থান বলা হবে।

অধ্যাপক আলী রীয়াজ বলেন যে এ ব্যাপারে কোনই ভিন্ন মতের কারণ নেই ্ ছয় দশক ধরে সেনাবাহিনী যখন মিশর শাসন করেছে তখন সেক্যুলার লিবারেল ফোর্স বলতে যাদেরকে বোঝানো হয় , সে রকম কোন সংগঠনই তৈরি হয়নি কারণ ক্ষমতাসীন সেনাবাহিনী এবং সেনাবাহিনীর যে রাজনৈতিক দল ছিল তারা চেষ্টা করেছে যে তাদের যেন কোন প্রতিপক্ষ তৈরি না হয়। এরই মধ্যে মুসলিম ব্রাদারহুড সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালি হয়ে ওঠে। অধ্যাপক রীয়াজ বলেন যে মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে সেনাবাহিনীর সংঘাত যদি তীব্র আকার ধারণ করে তা হলে পরিস্থিতি আলজিরিয়ার মতো গুরুতর হয়ে উঠতে পারে । এই মুহুর্তে সেনাবাহিনী এবং দেশের লিবারেল ফোর্স একই জায়গায় দাড়িয়ে আছে কিন্তু তাদের এই ঐকমত্য যে একই জায়গায় থাকবে এমন কোন কারণ নেই। কাজেই যদি সেনাবাহিনী গণতান্ত্রিক পদ্ধতি অবলম্বন না করে , তা হলে গণতন্ত্রকামীদের সঙ্গেও তাদের সংঘাত হতে পারে।


XS
SM
MD
LG