অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সারা বিশ্বে নতুন বছরের আনন্দউল্লাস প্রকাশ


সারা বিশ্বে নতুন বছরের আনন্দউল্লাস প্রকাশ

সারা বিশ্বে নতুন বছরের আনন্দউল্লাস প্রকাশ

উজ্জ্বল আতশ বাজি সিডনি থেকে নিউ ইয়র্ক পর্যন্ত আকাশে বর্নিল আলোর রেখা তৈরি করে যখন বিশ্বব্যাপী কোটি কোটি লোক ২০১২ সাল কে বরণ করে নেয়, একটি উন্নত ভবিষ্যতের আশায়।

ভ্যাটিকানে পোপ বেনেডিক্ট হাজার হাজার পর্যটক ও তীর্থ যাত্রীদর সংঘাতময় অঞ্চলে বিশ্বব্যাপী শান্তি , মিলন ও ক্ষমার জন্যে প্রার্থনা করতে বলেন। তিনি বিশ্বের সম্পদের আরও ন্যায্য বিতরণের কথাও বলেন।

কায়রোর তাহরির স্কোয়ারে হাজার হাজার মিশরবাসী মিছিল করে যায়। তারা ২০১১ সালে হোসনে মুবারকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের সময়ে নিহতদের ছবি বহন করছিল।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং তাঁর পরিবারের সদস্যরা, প্রেসিডেন্টের জন্মস্থান হাওয়াইয়ে নববর্ষ উদযাপন করেছেন । হাওয়াই হচ্ছে বিশ্বে অন্যতম শেষ স্থান যেখানে নতুন বছরকে স্বাগত জানানো হয়। এর কয়েক ঘন্টা আগেইই পপ গানের শিল্পি লেডি গাগা এবং অপেরা তারকা প্লাসিডো ডমিঙ্গো ছিলেন টাইম স্কোয়ারে সমবেত বিশেষ বিশে ব্যক্তির অন্যতম। সেখানে বলা হচ্ছে দশ লক্ষ লোকের সমাবেশ ঘটে।

রিও ডি জ্যনিরোতে হাজার হাজার লোক কোপাকাবানা সমুদ্র সৈকতে দাড়িয়ে আকাশে আলোর খেলা দেখেন নব বর্ষের আগমনের প্রতিক্ষায়।

অ্যাটলান্টিকের অপর পারে লন্ডনে আতশ বাজির মাধ্যমে নতুন বছরকে স্বাগত জানানো হয় এবং একটি রেকর্ড বাজানো হয় , যেখানে বলা হয়েছে যে ২০১২ সালের অলিম্পিক খেলা স্বাগত শহর হচ্ছে লন্ডন। হাজার হাজার লোক টেইমস নদীর পারে দাঁড়িয়ে এই আতশবাজির মনোরম দৃশ্য উপভোগ করেন । একজন ব্রিটিশ তরুণী বলেন এ বছরটি তাদেঁর জন্যে আনন্দ উৎসবের বছর। বার্লিনেও রাতের আকাশে মনোরম আতশ বাজি দেখানো হয়।

দক্ষিণ পুর্ব এশিয়ার দেশগুলি সবার আগে আতশ বাজি লেজার লাইটের খেলা , রাস্তায় রাস্তায় বিভিন্ন অ নুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নব বর্সকে স্বাগত জানায়। হংকং , সিড নি , বেইজং , সাংহাই ২০১২ সালের আগমনে আনন্দ উল্লাস লক্ষ্য করা গেছে। তবে গত বছরের জানুয়ারীতে ভুমিকম্প ও সুনামির স্মৃতিতে জাপানে নববর্ষ উদযাপন ছিল অনেক বেশী ম্লান। নববর্ষের বানীতে জাপানি সম্রাট আকিহিতো আশা করেন যে ২০১১ সালের প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের পর সবাই জাপানের পুননির্মাণে সহযোগিতা করবেন।

XS
SM
MD
LG