অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ায় নতুন করে হিংসা হানাহানিতে ১০ জন নিহত


সিরিয়ায় নতুন করে হিংসা হানাহানিতে ১০ জন নিহত

সিরিয়ায় নতুন করে হিংসা হানাহানিতে ১০ জন নিহত

সিরিয়ার সক্রিবাদীরা বলছেন যে সিরিয়ার সামরিক বাহিনী আজ সোমবার ১০ জনকে হত্রা করেছে। এ দিকে সরকার ঘোষণা করেছে যে সিরিয়ার ভোটদাতারা ব্যাপক হারে একটি নতুন সংবিধান অনুমোদন করেছে যাকে সিরীয় নেতারা গণতন্ত্রায়নের দিকে একটি পদক্ষেপ বলে অভিহিত করছেন।

লন্ডন ভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটারী ফর হিউমান রাইটস বলেছে যে এই নতুন করে গোলা নিক্ষেপে অধিকাংশ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে মধ্যাঞ্চলের শহর হমস এর সুন্নি অধ্যূষিত মহল্লায়। রোববার থেকে সরকার বিরোধী অভুত্থানের বিরুদ্ধে দমন অভিযানে সহিংসতায় কমপক্ষে ৪০ জন প্রাণ হারিয়েছে।

এদিকে সিরিয়ার অভ্যন্তরীণ মন্ত্রক ঘোষণা করেছে যে ৯০ শতাং শ ভোটদাতা রোববারের গণভোটে নতুন সংবিধানের পক্ষে রায় দিয়েছে। বিরোধীরা এরই মধ্যে ঐ ভোটাভুটি বর্জনের আহ্বান জানিয়ে বলেছে যে সিরিয়ার সংকটের একমাত্র সমাধান হচ্ছে প্রেসিডেন্ট আসদের ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানো।

পশ্চিমি সরকারগুলি এই গণভোট প্রত্যাখ্যান করেছে , তবে চীন ও রাশিয়া আজ এটিকে স্বাগত জানিয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সরকারের ওপর আজ নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এ মাত্র একদিন আগেই সেখানে সরকার বিরোধী আন্দোলনের বিরুদ্ধে দমন অভিযানে সহিংসতায় তিরিশ জন প্রাণ হারায়।

ই.ইউর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সিরিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক এর উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এবং সিরিয়ার বেশ কিছু সরকারী কর্মকর্তাদের সম্পত্তি লেন দেন আটকে দেয়। এ দিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টন আসাদকে সমর্থনকারী সিরিয়ানদের, বিশেষত সেখানকার সামরিক বাহিনী এবং ব্যবসায়ীদের সতর্ক করে দিয়ে বলেন যে যত দীর্ঘদিন এই সরকারের সহিংসতাকে আপনারা সমর্থন করবেন , ততই আপনাদের নিজেদের মর্যাদা ক্ষুন্ন হবে।

XS
SM
MD
LG