অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আন্তর্জাতিক রেডক্রস কমিটি বলছে যে সিরিয়ায় ত্রাণ কর্মিরা হমস এর বাবা আমর এ এক মাস ব্যাপী গোলা বর্ষণ থেকে রক্ষা পেতে যারা আবেল গ্রামে আশ্রয় নিয়েুছিল তাদেরকে ত্রাণ সামগ্রি বিতরণ শুরু করেছে। তাদের সঙ্গে সিরীয় আরব রেড ক্রিসেন্ন্ট টিম ও রয়েছে। এই গ্রামটি হমস শহর থেকে মাত্র তিন কিলোমিটার দূরে। তাা বলছেন যে ত্রাণ কার্যক্রম আজ দিনে আরও পরের দিকে হমস এর ইনশাত এলাকায় ও শুরু করা সম্ভভ হবে।

তবে আই সি আর সি কর্মকর্তারা বলছেন যে সিরীয় বাহিনী ত্রাণ কর্মিদের বাবা আমর এ প্রবেশ থেকে নিবৃত্ত রাখছেন নিরাপত্তার কথা বলে।

আন্তর্জাতিক রেডক্রস কমিটির মুখপাত্র Sean Maguire ব্রিটেনের স্কাই নিউজকে শনিবার বলেন যে চিকিৎসা সামগ্রি এবং খাদ্য দ্রব্য নিয়ে সাতটি ট্রাকের একটি যানবহর হমস এ প্রবেশ করেছিল কিন্তু তারা বাবা আমর এ যেতে পারেনি।

তিনি বলেন যে তাদেরকে বলা হয়েছিল যে আরও এগিয়ে যাওয়াটা নিরাপদ নয় এবং এখন তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। গত সপ্তায় যদিও দু বার বাবা আমর এ অ্যামবুলেন্স প্রবেশ করতে পেরেছিল , আহতদের উদ্ধার করে আনতে। আই সি আর সি কর্মকর্তারা বলেছেন যে বাবা আমর এ তাদের প্রবেশ করতে দিতে তারা সিরীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অন্য এক খবরে রোববার জানা গেছে যে অধিকার কর্মিরা জানাচ্ছেন আসাদ পন্থি সৈন্যরা হমস এর উত্তরে অবস্থিত বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা রাস্তান শহরে গোলা বর্ষণ করেছে। রয়টার বার্তা সংস্থার একজন রিপোর্টার হমস এর দক্ষিণে কুসাইরে সরকারী গোলা বর্ষণ থেকে রক্ষা পেতে লোকজনকে পালিয়ে যেতে দেখেছেন। জাতিসংঘের এক ত্রাণ সংস্তাকে উদ্ধৃত করে রয়টার বলছে যে দু হাজারের মতো সিরিয়া বাসী কুসাইরের গোলা থেকে রক্ষা পেতে সীমান্ত অতিক্রম করে লেবাননে পালিয়ে যাচ্ছে।

XS
SM
MD
LG