অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর একজন সদস্য দক্ষিণের কান্দাহার প্রদেশে গুলি করে ১৬ জন আফগান অসামরিক ব্যক্তিকে হত্যা করেছে। এতে কাবুল ও ওয়াশিংটনের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হলো।

আফগান প্রেসিডেন্ট এই গুলি চালনার ঘটনাকে অমার্জনীয় বলেছেন । তিনি যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে এই অনিচ্ছাকৃত হত্যার ব্যাপারে ব্যাখ্যা চেয়েছেন। মি কারজাই বলছেন যে হতাহতদের মধ্যে ন জন শিশু এবং তিন জন মহিলা আছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন যে এই গুলি চালনার ঘটনা অত্যন্ত বিয়োগান্তক ও বেদনাময়। মি ওবামা এই ঘটনার যারা শিকার হয়েছেন তাদের পরিজনদের প্রতি সমবেদনা জানান। তিনি বলেন যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী যে ঘটনার দ্রুত তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন এবং যে এর জন্যে দায়ি তার জবাবদিহিতার কথা বলেছেন তার সঙ্গে তিনি একমত ।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মি কারজাইকে এই আশ্বাস দেন যে তদন্ত শুরু হয়ে গেছে এবং সন্দেহভাজন লোকটিকে আটক করা হয়েছে। রোববার টেলিফোনে মি পানেটা আফগান প্রেসিডেন্টকে বলেন যে যারা এই ঘটনার জন্যে দায়ি তাদেরকে বিচারের সম্মুখীন করা হবে। আফগানিস্তানে নেটোর নের্তত্বাধীন বাহিনীর মার্কিন কমান্ডার জেনারেল জন অ্যালেন ও একই মন্তব্য করেন। নেটোর আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সহযোগিতা বাহিনীর Brigadier General Carsten Jacobson বলেন যে খুব ভোর বেলায় , আলো ফোটার আগেই পশ্চিম কান্দাহারের পাঞ্জাওয়ী এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রের একজন সৈন্য নিজের ঘাঁটি থেকে বেরিয়ে নিকটবর্তী গ্রামে নির্দোষ অসামরিক লোকদের ওপর গুলি চালায় এবং তার নিজের ঘাটিতে ফিরে এসে আত্মসমর্পণ করে। কোন অবস্থায় সে গুলি চালায় সেটা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। অনেক প্রত্যক্ষদর্শি ভয়েস অফ আমেরিকার দারি বিভাগকে বলে যে বেশ কয়েকজন আক্রমণকারী ছিল কিন্তু কর্মকর্তারা কেবল একজনের কথাই উল্লেখ করেছেন। সীমান্ত ও উপজাতীয় বিষয়ক আফগান মন্ত্রী আসাদুল্লাহ খালিদ বলেন যে বেশ কয়েকটি বাড়িতে অনেক ক জন শহীদ হন। একটি বাড়িতে ১১ জন শহীদ হন এবং অন্য বাড়িতে অনেকেই আহত হন , নিহত হন একজন।

XS
SM
MD
LG