অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গোটা সিরিয়া জুড়ে হিংসা হানাহানিতে কমপক্ষে ৩৬ জন প্রাণ হারিয়েছে যদের প্রায় অর্ধেকই হচ্ছে সৈন্য। এ দিকে বাগদাদে আরব নেতারা তাদের এক শীর্ষ সম্মেলনে শান্তি পরিকল্পনার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সিরিয়ান রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম বলেছে যে বিদ্রোহীরা বিমান বাহিনীর এক জেনারেলকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং উত্তরেন আলেপ্পো নগরীতে সেনাবাহিনীর দু জন কর্ণেলকে হত্যা করে। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সানা এ সব কর্মকান্ডের জন্যে তাদের কথায় সশস্ত্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠিকে দায়ি করে। অধিকার গোষ্ঠিগুলি বলেছে যে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের প্রতি অনুগত সৈন্ররা সিরিয়ার মধ্যাঞ্চল এবং উত্তরের ইদলিব প্রদেশে বিরোধীদের ঘাটির ওপর আঘাত হেনেছে।

এ দিকে বাগদাদে শীর্ষ সম্মেলনে উপস্থিত আরব নেতারা আন্তর্জাতিক দূত কফি আনানের শান্তি পরিকল্পনা খসড়া অনুমোদন করেন এবং অবিলম্বে এর সম্পুর্ণবাস্তবায়নে আহ্বান জানান। । পরিকল্পনায় উভয় পক্ষকে অস্ত্র বিরতির এবং সংলাপ শুরু করার কথা বলা হয়েছে তবে রাজনৈতিক পালাবদল হিসেবে মি আসাদকে ক্ষমতা ত্যাগের কথা বলা হয়নি।

এর আগে আরব লীগের মহাসচিব নাবিল এলআরাবি বলেন তিনি বলছেন যে সিরিয়ার সংঘর্ষ আমাদের জন্যে চিন্তা ও উদ্বেগের কারণ। আর গত বছর ও আরব লীগ প্রাত্যহিক রক্তপাত ও মানবাধিকার লংঘন বন্ধের চেষ্টা চালিয়ে এসছে।

XS
SM
MD
LG