অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আজ রোববার ফ্রান্সের জনগণ ফিরতি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন। সর্বসাম্প্রতিক জনমত জরিপে দেখা যাচ্ছে যে প্রেসিডেন্ট নিকোলা সারকোজির সঙ্গে তার সমাজবাদী প্রতিদ্বন্দ্বি ফ্রাঁসোয়া হোলান্দের ভোটের পার্থক্য হ্রাস পেয়েছে। যদি ও এবারের নির্বাচনে মি হোলান্দেই জয়ী হবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

মি হোলান্দে আজ মধ্যাঞ্চলের শহর তুলেতে তাঁর ভোট দিয়েছেন। এক সময়ে তিনি সেখানকার মেয়র ছিলেন। মি সারকোজি এবং তাঁর স্ত্রী প্যারিসের একটি ভোটকেন্দ্রে নিজেদের ভোট দেন।

গত ৫ বছর অর্থনীতিকে যে ভাবে তিনি চালিয়েছেন সে জন্যে এবং তাঁর হঠকারিতার জন্যে প্রেসিডেন্ট সারকোজি সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন। তবে অর্থনৈতিক বিবেচনাতেই টমসন রয়টার আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সিরিল ব্ল্যাঙ্কার্ড সারোকাজিকেই ভোট দিয়েছেন। তিনি বলেন ,আমাদের সঙ্কট মোচনের জন্যে এবং ঘাটতি কমানোর জন্যে আমাদের কিছু একটা করতেই হবে। আর সেটাই আমার ভোটে প্রার্থি বাছাইয়ের প্রধান কারণ। অন্যদিকে মি হোলান্দেরে যুক্তি সমর্থন করেন শিক্ষয়িত্রি ডেলফাইন শিলট ।

শিলট মনে করেন যে মি সারকোজি যে ৫ বছর ক্ষমতায় রয়েছেন , সেটি সব দিক দিয়েই নেতিবাচক ফল দিয়েছে। তিনি মনে করেন মি হোলান্দে ন্যায়পরায়ণ ব্যক্তি ।

মি হো লান্দে একজন প্রবীণ রাজনীতিক , তিনি বহু বছর সমাজবাদী দলের প্রধান ছিলেন তবে তিনি কখনই শীর্ষ সরকারী পদে আসেননি। রাত আটটায় তার ভোটগ্রহণ শেষ হবে । প্রাথমিক ফলাফল আজ রোববার স্থানীয় সময়ে সন্ধার পর পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

XS
SM
MD
LG