অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ার পরিস্থিতি জটিল ও অস্পষ্ট : ড মাইকেল রায়ান


সিরিয়ায় নিহত পুলিশের মরদেহ বহন করা হচেছ

সিরিয়ায় নিহত পুলিশের মরদেহ বহন করা হচেছ

সিরিয়ার পরিস্থিতি আবার ও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে । সেখানকার জিসর আল শুগর শহরে শহরে ১২০ জন সরকারী সৈন্যকে হত্যা করা হয়েছে। সরকার পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে বিরোধীদের একটি সশস্ত্র দল এই হত্যাকান্ড চালিয়েছে। সরকার পাল্টা ব্যবস্থা নিতে পারে ভেবে ঐ জিসর আল শুগর শহরের বাশিন্দারা এরই মধ্যে শহর থেকে পালানো শুরু করেছে।

ওয়াশিংটনের মিডল ইস্ট ইনস্টিটিউটের স্কলার এবং জর্জ টাউন ফাউন্ডেশানের ফেলো ড মাইকেল রায়ান বলেন যে সমস্যাটা হচ্ছে যে নিরপেক্ষ ভাবে কোন খবরের সত্যাসত্য সিরিয়ায় যাচাই করা সম্ভব নয় । সিরিয়ার সরকারতো বলছে যে ঐ সশস্ত্র চক্রের মধ্যে চরমপন্থিরা ছিল , ছিল বিদেশিরাও , তবে এ ধরণের কথা আমরা আগেই শুনেছি । বর্তমান প্রেসিডেন্ট বাবা হাফিজ আল আসাদ ও এ ধরণের অভিযোগ এনেছেন ১৯৮২ সালে যখন একটি শহরকে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেয় সিরীয় সৈন্যরা । কিন্তু বস্তুনিষ্ঠভাবে বিষয়টি দেখা মুস্কিল। তবে যেটা পরিস্কার সেটা হলো যে সিরিয়ার রাষ্ট্র পরিচালিত টেলিভিশন এ্ই ব্যাপারেই জোর দিয়ে বলছে যে সিরিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর লোকদের মেরে ফেলা হয়েছে। তাতে এ রকম ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে যে সরকার হয়ত এর ফলে পরবর্তী অভিযানকে যুক্তিসম্মত বলে প্রমাণ করার চেষ্টা করবে।

এ রকম কথা ও তো শোনা যাচ্ছে যে এই ঘটনাটি , সেনাবাহিনীর নিজেদের মধ্যেকার এক ধরণের বিদ্রোহ ও হতে পারে ।

XS
SM
MD
LG