অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশ-ভারত সহযোগিতা হওয়া প্রয়োজন সামগ্রিক, বিচ্ছিন্ন নয়: অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ

  • আনিস আহমেদ

নতুন দিল্লিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরের সময়ে যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল তার পুর্নাঙ্গ বাস্তবায়নই কাম্য বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ। শনিবার ভারতের বানিজ্য মন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় বাংলাদেশে এক ঝটিকা সফরে গিয়েছিলেন মুলত বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের এক্সিম ব্যাঙ্কের একটি ঋণ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। ঐ চুক্তি সম্পর্কে এক পক্ষ যেমন বলছে যে এতে বাংলাদেশের অব-কাঠামোগত উন্নয়ন নিশ্চিত হয়েছে, তেমনি এই চুক্তির সমালোচকরা বলছেন যে চুক্তির শর্তগুলো বাংলাদেশের অনুকুলে নয়।

এ সম্পর্কেই ভয়েস অফ আমেরিকাকে দেওয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে অধ্যাপক আহমেদ বলেন যে এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে এই চুক্তির ব্যাপারে বিরোধী দলের যে আপত্তি ছিল সেটি মূলত এ কারণে যে তারা ভেবেছিল এটি প্রাইভেট ব্যাংক এবং দ্বিতীয়ত সুদের হার বিষয়ে। তবে এখন আর ভুল বোঝার কোন অবকাশ নেই কারণ, এক্সিম ব্যাংক, সরকারী ব্যাংক আর অবকাঠামো খাতে সুদের এই হারে অন্য সুত্র থেকে ঋণ পাওয়া সম্ভব নয়। তবে ডঃ আহমেদ বলেন যে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আরো কিছু সমস্যা রয়েছে যেমন তিস্তা নদীর পানি বন্টন, টিপাইমুখ বাঁধ, কয়েকটি ছিঁটমহল, শুল্কমুক্ত বানিজ্য এসব বিষয়ে। সেজন্যই তিনি মনে করেন যে চুক্তির আংশিক নয়, পুর্ণ বাস্তবায়ন প্রয়োজন।

দক্ষিণ এশিয়ায় সন্ত্রাস দমনের জন্যে টাস্ক ফোর্স গঠনের বিষয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রস্তাব সম্পর্কে অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন যে এই বিষয়টি নিয়ে ধীরে এগুনো প্রয়োজন কারণ দক্ষিণ এশিয়ার টাস্ক ফোর্স গঠনের অর্থ হচ্ছে পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান ও শ্রীল‌ংকাকেও অন্তর্ভুক্ত করা। তবে তিনি বলেন যে এ ব্যাপারে একেডেমিক আলোচনা এবং গোয়েন্দা কাজ কর্মে সহযোগিতার প্রয়োজন আছে। তিনি নেপাল ও ভূটানের সঙ্গে ট্রানজিট সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা সহ অন্যান্য অর্থনৈতিক-কুটনীতির প্রসঙ্গেও আলোচনা করেন।

XS
SM
MD
LG