অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নেলসান ম্যাণ্ডেলা হয়তো তার এক স্বপ্নের উত্সব – বিশ্বকাপের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে যাবেন

  • রোকেয়া হায়দার

দক্ষিণ আফ্রিকায় সাফল্যের সঙ্গে অনুষ্ঠিত হলো একমাসব্যাপী বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রতিযোগিতা। আর একথা অনস্বীকার্য যে আফ্রিকা মহাদেশে এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মাঠে মাঠে বিশ্বকাপের এই বিরাট আয়োজন সম্ভব হয়েছে বর্ষিয়ান নেতা নেলসান ম্যাণ্ডেলার অক্লান্ত উদ্যম – উত্সাহ ও যোগাযোগের ফলে। শনিবার তৃতীয় স্থানের জন্য লড়বে উরুগুয়ে আর জার্মানী। অপরদিকে রবিবার ফাইনালে দুটি দেশ নেদারল্যাণ্ডস ও ইওরোপীয় চ্যাম্পিয়ানের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইএর অপেক্ষায় রয়েছে দর্শকভক্তরা। স্পেন ও নেদারল্যাণ্ডস কোন দেশই বিশ্ব ফুটবলের সোনার কাপটি হাতে নিয়ে ঘরে ফেরেনি। এবার তার স্পর্শ পাবে এদেরই কোন একটি দেশ।

দক্ষিণ আফ্রিকায় কেন জানি নেদারল্যাণ্ডসের ভক্ত সংখ্যা বেশী তাই চারিদিকেই যেন কমলা রঙের ছড়াছড়ি। অসংখ্য দর্শক- পর্যটকের ভীড় জমেছে খেলার শহরগুলোর হাটে বাজারে । হোটেলে ঠাঁই নেই – ঠাঁই নেই। তার মধ্যে প্রায় ২৩টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান এবং খোদ রাণী সোফিয়া, স্পেনের রাণী সোফিয়া, চূড়ান্ত বিশ্বকাপ দেখতে যাবেন সকার সিটি স্টেডিয়ামে। দারুণ উত্তেজনা, কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দক্ষিণ আফ্রিকায় অন্যান্য প্রবাসীদের মধ্যে বাঙালীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়। আর বাঙালী যেখানেই থাকুন না কেন, ফুটবল তাদের সবচাইতে প্রিয় খেলা। তাই বিশ্বকাপের মাঠেও বাংলা ভাষার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বৈকি!

XS
SM
MD
LG