অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিন লাদেন নির্মূল অভিযানের পাকিস্তানি সমালোচনা যুক্তরাষ্ট্র প্রত্যাখ্যান করেছে


বিন লাদেন নির্মূল অভিযানের পাকিস্তানি সমালোচনা যুক্তরাষ্ট্র প্রত্যাখ্যান করেছে

বিন লাদেন নির্মূল অভিযানের পাকিস্তানি সমালোচনা যুক্তরাষ্ট্র প্রত্যাখ্যান করেছে

হোয়াইট হাউস বলছেন যে পাকিস্তানের ভূমিতে ওসামা বিন লাদেনকে যে অভিযানে হতা করা হয়েছে তার জন্যে যুক্তরাষ্ট্র “ক্ষমা” চাইবে না।

মুখপাত্র জে কার্নি বলেন যে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা অনুভব করেন যে বিশ্বের সব চেয়ে মারাত্মক ঐ সন্ত্রাসীকে ধরার জন্যে তার অবশ্যই অধিকার ছিল।

এর আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি সতর্ক করে দেন যে পাকিস্তানের মাটিতে একপাক্ষিক কর্মকান্ড ভয়াবহ পরণত নিয়ে আসতে পারে।

কার্নি বলেন ওয়াশিংটন বুঝতে পারে পাকিস্তানের উদ্বেগ এবং ইসলামাবাদের সঙ্গে সহযোগিতা যুক্তরাস্ট্রের স্বার্থের জন্যে গুরুত্বপুর্ণ বিষয়

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলছেন যে তিনি আল ক্বায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনের বিরুদ্ধে এই অভিযানের নির্দেশ দেন , যখন এই সিদ্ধানেন্ত পৌছান যে এতে ঝুঁকি আছে কিন্তু , এই লোকটি ধরার সম্ভাবনা ঐ ঝুঁকির চেয়ে ও বেশি ।

রোববার রসি বি এস এর সিক্সটি মিনিট অনুষ্ঠানে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মি ওবামা বলেন যে , তাঁর সব চেয়ে বড় উদ্বেগ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের কমান্ডোদের নিয়ে , যারা কি না পাকিস্তানের আবতাবাদে বিন লাদেনের আস্তানায় হানা দেয়। প্রেসিডেন্ট বলেন যে এই অভিযানের ৪০ মিনিট ছিল , তাঁর জীবনের সব চেয়ে দীর্ঘ সময়।

মি ওবামা বলেছেন যে কেউ যদি এই প্রশ্ন করে যে ঐ সন্ত্রাসী নেতার এই পরিণতি প্রাপ্য ছিল কী না , তা হলে তার নিজের মস্তিস্ক পরীক্ষা করানোর প্রয়োজন আছে।

তিনি আরও বলেন যে এটা পরিস্কার যে পাকিস্তানের ভেতরেই বিন লাদেনের সমর্থনের নেটওয়ার্ক ছিল তবে এই নেটওয়ার্কে পাকিস্তানি কর্মকর্তারা জড়িত ছিলেন কী না সেটা পরিস্কার নয়। তিনি বলেন এই বিষয়টিকে পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্রের খতিয়ে দেখতে হবে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার এ বক্তব্য সম্পর্কে কানাডার লেকহিড ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধান , অধ্যাপক সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম বলেন :

XS
SM
MD
LG