অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের সঙ্গে গাদ্দাফি পুত্রের বিচার নিয়ে আলোচনা হবে


আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের সঙ্গে গাদ্দাফি পুত্রের বিচার নিয়ে আলোচনা হবে

লিবিয়ার নিহত স্বৈরশাসক মেয়াম্মার গাদ্দাফির পুত্র সাইফ-এল –ইসলাম গাদ্দাফির বিচার কোথায় করা হবে সে নিয়ে সেখানকার অন্তবর্তী সরকার আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত বা আই সি সি ‘র সঙ্গে আলোচনার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আই সি সি ‘র অভিশংসক লুই মরেনো ওকাম্পো বলছেন যে ঐ বিচার ব্যবস্থা আলোচনার জন্যে তিনি এক সপ্তার মধ্যেই লিবিয়া সফর করবেন।

লিবিয়ার দক্ষিনাঞ্চলের এক মরুভূমিতে শনিবার ভোরে , পশ্চিমাঞ্চলের শহর জিনটানের মিলিশিয়ারা সাইফ আল ইসলামকে আটক করে।

লিবিয়ার কোন কোন কর্মকর্তা বলেছেন যে তারা মোয়াম্মার গাদ্দাফির এই সাবেক উত্তরাধিকারীর বিচার লিবিয়াতেই হোক সেটাই চান।

নেদারল্যান্ডস ভিত্তিক আই সি সি জুন মাসেই সাইফ আল ইসলাম , তাঁর বাবা এবং ঐ নিহত স্বৈরশাসকের সাবেক গোয়েন্দা প্রধানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করে। গণতন্ত্রপন্থি উত্থানকে সহিংস ভাবে দমন করে মানবতা বিরোধী অপরাধ সংগঠনের অভিযোগ রয়েছে , তাদের বিরুদ্ধে।

লিবিয়ার অন্তবর্তী প্রশাসনের যোদ্ধারা গত ২০শে অক্টোবর গাদ্দাফির নিজস্ব শহরে তাকে আটক করে হত্যা করে। সাবেক গোয়েন্দা প্রধান এখন ও লুকিয়ে রয়েছেন।

লিবিয়ার অন্তবর্তী প্রধান মন্ত্রী আব্দুর রহিম এল কেইব শনিবার জিনটানে গিয়ে সাইফ আল ইসলামের গ্রেপ্তারকে দেশের জন্যে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা বলে এর প্রশংসা করেছেন।

অন্তবর্তী সরকারের বাহিনী ফেব্রুয়ারি মাসে এই গণঅত্থানের সূচনা করে এবং অগাস্ট মাসে মোয়াম্মার গাদ্দাফিকে ত্রিপোলী ছাড়তে বাধ্য করে। এতে ঐ একনায়কের ৪২ বছরের শাসনের অবসান ঘটে।

এ দিকে লিবিয়ার অধিবাসীরা সাইফ আল ইসলামের আটক হওয়ায় , ত্রিপোলী ও অন্যান্য শহরে শুন্যে গুলি ছুড়ে তাদের আনন্দ প্রকাশ করে।

XS
SM
MD
LG