অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ওবামা ও মালিকি ইরাক যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতার রূপরেখা তুলে ধরলেন


ওবামা ও মালিকি ইরাক যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতার রূপরেখা তুলে ধরলেন

ওবামা ও মালিকি ইরাক যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতার রূপরেখা তুলে ধরলেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ইরাকী প্রেসিডেন্ট নুরী আল মালিকি ইরাকে আমেরিকান সৈন্যের উপস্থিতি ছাড়াই যুদ্ধোত্তর সহযোগিতার একটি ব্যাপক রূপরেখা তুলে ধরেছেন যেখানে মধ্যপ্রাচ্যে একটি সার্বভৌম ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের অভ্যুদয়কে স্বাগত জানানো হয়েছে।

সোমবার হোয়াইট হাউজের আলোচনা শেষে এই দুই নেতা ইরাকের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

মি ওবামা বলেন যে অন্যান্য যে সব দেশ গণতন্ত্রের জন্যে আগ্রহী ইরাক তাদের জন্যে একটি মডেল হতে পারে এবং এতে সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের রক্ত ও সম্পদ ব্যয় করার খরচ করা যৌক্তিকতা খুজে পাওয়া যায়। তিনি বলেন যুক্ত রাষ্ট্রের সৈন্যরা ইরাকে মর্যাদার সঙ্গে কাজ করেছে এবং বাহ্যত ইরানের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন যে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য ইরাক ত্যাগ করার পর তারা যেন ইরাকে কোন হস্তক্ষপ না করে।

ইরাকি নেতা যুক্তরাষ্ট্রকে তার প্রতিশ্রুতির জন্যে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন যে এখন ও সহযোগিতার প্রয়োজন রয়েছে বিশেষত নিরাপত্তা বাহিনীর প্রশিক্ষণ এবং ইরাকী সৈন্যদের সাজ সরঞ্জাম সরবরাহের জন্য। মি মালিকি বলেন যে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য প্রত্যাহারের অর্থ হচ্ছে প্রায় ন বছর পর এ ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করা সম্ভব হয়েছে।

সোমবারের এই আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনী প্রত্যাহারের পর যুক্তরাষ্ট্র ও ইরাক কি ভাবে সহযোগিতা করবে পরস্পরকে , তার উপর আলোকপাত করা হয়।

এই দুই নেতা পের আর্লিংটন সমাধি পুস্পার্ঘ অর্পণ করেন যেখানে ২০০৩ সলে যুদ্ধ শুরু হবার পর থেকে ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর প্রায় সাড়ে চার হাজার সদস্যের সমাধি রয়েছে।

XS
SM
MD
LG