অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে তত্বাবধায়ক সরকার হোক আর না হোক শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন প্রয়োজন: আসিফ নজরুল

  • আনিস আহমেদ

বাংলাদেশে তত্বাবধায়ক সরকার হোক আর না হোক শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন প্রয়োজন: আসিফ নজরুল

বাংলাদেশে তত্বাবধায়ক সরকার হোক আর না হোক শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন প্রয়োজন: আসিফ নজরুল

বাংলাদেশে একটি নিরপেক্ষ ও সকল দলের কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠন করার লক্ষে রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের তরফ থেকে যে উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে , তাতে প্রধান বিরোধীদল শর্ত সাপেক্ষে যোগ দিতে রাজী হয়েছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে নির্বাচন কমিশন গঠন , এর স্বাতন্ত্র ও স্বাধীনতা , সরকারী ও বিরোধীদলের ভুমিকা এ সব নিয়ে ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে কথা বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড আসিফ নজরুল।

অধ্যাপক নজরুল বলেন যে রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান যে উদ্যোগ নিয়েছেন , সেটা প্রশংসনীয় তবে তিনি বলেন যে নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে ১৯৭২ সাল থেকেই সংবিধানে আইন তৈরির কথা রয়েছে কিন্তু বিগত প্রায় চল্লিশ বছরে এ ব্যাপারে কোন সরকারই আইন তৈরির উদ্যোগ নেয়নি। অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেন যে রাষ্ট্রপতি আলোচ্যসূচিতে যদি এই আইন তৈরির বিষয়টি থাকে তা হলে তাতে এই সংকট ও সংশয় হ্রাস পাবে।

বিএনপি যে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নির্বাচন কমিশন বিষয়ে আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে , তাকে অধ্যাপক আসিফ নজরুল একটি ইতিবাচক দিক বলে উল্লেখ করেন । তিনি বলেন যে তাদের সংসদ বর্জন সহ বিভিন্ন বর্জন নীতির বিষয়টি জনগণ সহজ ভাবে গ্রহণ করেনি। তাই রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনায় যোগ দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত সবাই স্বাগত জানাচ্ছে। তিনি বলেন যে তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হোক , কিংবা নাই-ই হোক , যেটা জরুরি সেটা হলো নির্বাচন কমিশনকে শক্তিশালি ও কার্যকর হতেই হবে।

অধ্যাপক আসিফ নজরুল অবশ্য বলেন যে বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে আমূল পরিবর্তন না আনলে দলীয় সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনকেই কেউ মেনে নেবে না। তিনি পরিহাস করেই বলেন যে ক্ষমতাসীন আওয়ামি লীগ যদি নিজেদের অধীনে দেওয়া নির্বাচনে নিজেরা পরাজিত হয়ে প্রশান করতে পারে যে তত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া ও নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে , তা হলেই কেবল দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন বিশ্বাসযোগ্যতা পাবে।

XS
SM
MD
LG