অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অলিম্পিক কি শুধু খেলার প্রতিযোগিতা ? না, খেলার সাথে এক বিশেষ সাংস্কৃতিক উত্সব।

  • রোকেয়া হায়দার

অলিম্পিক কি শুধু খেলার প্রতিযোগিতা ? না, খেলার সাথে এক বিশেষ সাংস্কৃতিক উত্সব। আজকের পর্বে সে কথাই শোনাচ্ছেন -- রোকেয়া হায়দার

জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে গোটা বিশ্বের মনোযোগ থাকবে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের দিকে। খেলার পাশাপাশি গান বাজনা, চিত্র প্রদর্শনী, আর অলিম্পিককে উপলক্ষ্য করে বিশেষ উপহার সামগ্রীর বিপনী বিতান। খেলোয়াড় কর্মকর্তা, পর্যটকদের সঙ্গে থাকবেন শিল্পী সাংবাদিকরা।

সম্প্রতি নিউইয়র্কে অলিম্পিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে বিস্তারিত জানালেন উত্সবের পরিচালক রুথ ম্যাকেনজি। তিনি বলেন, ২০৪টি দেশের ২৫ হাজার শিল্পী যাবেন লণ্ডনে। গোটা যুক্তরাজ্য জুড়ে প্রতিযোগিতার বিভিন্ন স্থানে ১২ হাজার অনুষ্ঠান আয়োজনে তারা অংশ নেবেন। তিনি বলেন, এটা হচ্ছে চিরাচরিত রেওযাজ। তিনি বলেন, ‘এই উত্সব প্রাচীন গ্রীসের ধারা থেকে চলে আসছে তখন শিল্পী এবং খেলোয়াড়রা সমান পর্যায়ে ছিলেন। তারা সবাই অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় পাল্লা দিতেন। আসলে, ১৯৪৮ সাল পর্য্যন্ত শিল্পীদেরকেও অলিম্পিকের পদক দেয়া হতো। তাই আমরা এখনও সেই উত্সব বহাল রাখতে চাই, যেখানে শিল্পী ও খেলোয়াড় এবং শিক্ষার ধারা একই স্তম্ভে অবস্থান করবে’।

রুথ ম্যাকেনজি বলেন, শিল্পী ও খেলোয়াড়রা কঠোর পরিশ্রম করে অনুশীলন করে যান, প্রশিক্ষণ নেন, কোন ঝুঁকি নিতে দ্বিধা করেন না। তারা শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের লক্ষ্যে ‘তাদের মান এগিয়ে নিয়ে যান’। তিনি বলেন, ‘এবং আমি মনে করি যে, এটা আমাদের জানা খুবই জরুরী যে খেলোয়াড় ও শিল্পীদের অবদান সমান । তারা সবাই তাদের কাজে আমাদের উত্সাহিত করেন চমত্কৃত করেন’।

আমেরিকান নৃত্যশিল্পী এলিজাবেথ স্ট্রেব লণ্ডন উত্সবের জন্য তার নিজের রচিত ‘দ্য হিউম্যান ফাউন্টেন’এর ভিডিও তৈরীর কাজে গত ২ বছর ধরে অনেক পরিশ্রম করেছেন। এলিজাবেথ বললেন –‘আমি এই নাচের ভিডিওতে অনেক কৌশল কসরত তুলে ধরেছি, যা দৈহিকভাবে করা সম্ভব বলে আমি নিজেই বিশ্বাস করতে পারি না। আমি নতুন নতুন ধারা তুলে ধরেছি’।

বেশ কিছু যৌথ বৃটিশ আমেরিকান প্রকল্প তৈরী করা হচ্ছে। নিউইয়র্কের এক থিয়েটার গ্রুপ - উসটার গ্রুপ রয়াল শেক্সপিয়ার কোম্পানীর সঙ্গে মিলে তাদের পরিবেশনায় দর্শকদের মন জয়ের আশা করছে। উসটার গ্রুপের অভিনেতা কেট ভ্যাল্ক বললেন, দুটি দলই আলাদাভাবে রিহার্সাল করবে এবং তা প্রায় শেষ না হওয়া পর্য্যন্ত তারা কেউই অন্যের পরিবেশনা দেখার সুযোগ পাবে না। তিনি বলেন, ‘দুটি কোম্পানীর মধ্যে বিরাট ফারাক। সম্পূর্ণ ভিন্ন চিন্তাধারা। সেটা হচ্ছে যেমন গ্রীক আর ট্রোজানদের মধ্যে পার্থক্য ছিল। কিন্তু তারা মুখোমুখি হলো তাদের মধ্যে যুদ্ধ হলো। এই প্রতিযোগিতামুলক সাংস্কৃতিক বিনিময় কর্মসুচীতে এ হচ্ছে এক রূপক এবং আমরা জানিনা অবশেষে কি হবে’।

ইয়েস ইয়েস-নো গ্রুপের সহপ্রতিষ্ঠাতা জ্যাক লিবারম্যান বলেন, এই সব প্রকল্পের সঙ্গে আদি অলিম্পিকের একটা যোগসূত্র রয়েছে’ – তিনি বলেন, ‘এই যে দেওয়াল, এটা হচ্ছে সীমানা। রোমান সাম্রাজ্যের সীমানা। এবং আমরা দেখাতে চাই ভাসমান দেওয়ালটা মানুষকে পৃথক না করে, কাছে টেনে নিয়ে আসছে। আমি মনে করি অলিম্পিকের আদর্শই তাই – দূরের মানুষকে কাছে টেনে আনা’।

লণ্ডনের এই অলিম্পিক সাংস্কৃতিক উত্সব শুরু হবে ২১শে জুন অলিম্পিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার প্রায় এক মাস আগে আর শেষ হবে গিয়ে ৯ই সেপ্টেম্বর। খেলার রেশ মিলিয়ে যাওয়ার পরেও রয়ে যাবে রঙীন শিল্পকর্মের উর্মিমালা……..

XS
SM
MD
LG