অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কফি – ক্ষতিকর নেশা না ক্যান্সার থেকে বাঁচার উপায়?

  • সেহ্‌জীন চৌধুরী

কফি – ক্ষতিকর নেশা না ক্যান্সার থেকে বাঁচার উপায়?

কফি – ক্ষতিকর নেশা না ক্যান্সার থেকে বাঁচার উপায়?

আমরা এতদিন শুনতাম, কফি খাওয়া ভালো না। এতে স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়। নেশা হয়ে যায়।

কিন্‌তু সম্প্রতি আমরা শুনছি, কফি খেলে মহিলাদের মধ্যে ব্রেস্ট ক্যান্সার এবং পুরুষদের মধ্যে প্রস্টেইট ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়। লিভার ক্যান্সারও কম হয়।

কফি – ক্ষতিকর নেশা না ক্যান্সার থেকে বাঁচার উপায়?

কফি – ক্ষতিকর নেশা না ক্যান্সার থেকে বাঁচার উপায়?

স্টকহোমের ক্যারোলিংস্কা ইন্সটিটিউট প্রায় ৬০০০ মহিলাদের নিয়ে একটি সমীক্ষা চালিয়েছে। তাদের মধ্যে প্রায় সবার বয়সই ছিলো ৫০-এর উপরে। এই সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, যারা কফি কম খান, তাদের তুলনায় যারা কফি বেশি খায় তাদের ব্রেস্ট ক্যান্সার কম হয়। দিনে পাঁচ কাপ বা তার চেয়ে বেশি কফি খেলে এস্ট্রোজেন-রিসেপ্টার নেগেটিভ ব্রেস্ট ক্যান্সার নামে এক ধরনের ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

হার্ভার্ড স্কুল অফ পাব্লিক হেল্‌থের লরেলেই মাচি এবং তার সহকর্মীরা ৪৭,৯১১জন পুরুষদের নিয়ে একটি সমীক্ষা চালিয়েছেন। সেখানে দেখা গিয়েছে, যারা দিনে ছয় কাপ বা তার চেয়েও বেশি কফি খেতেন, তাদের প্রস্টেইট ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা অন্যদের চেয়ে ২০ শতাংশ কম।

কফির উপকারিতা এবং অপকারিতা নিয়ে জর্জিয়া রাজ্যের ডাক্তার সাঈদ জাফরের সঙ্গে কথা বলেছেন সেহ্‌জীন চৌধুরী। তিনি জানালেন কফি খাওয়ার নেশা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকর এবং কফির উপকারিতা কি কি। শুনুন, একজন ডাক্তার হিসেবে রুগীর প্রতি তাঁর পরামর্শ কি -

আমরা জানতে চাই আপনারা দিনে কয় কাপ কফি খান। ভিওয়ে বাংলা (VOA Bangla) ফেইসবুক ফ্যানপেইজে আসুন, আপনাদের মতামত জানান।


XS
SM
MD
LG