অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিরিয়ায় গণহত্যার পর বিরোধীরা জাতিসংঘকে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে


সিরিয়ায় গণহত্যার পর বিরোধীরা জাতিসংঘকে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে

সিরিয়ায় গণহত্যার পর বিরোধীরা জাতিসংঘকে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে

সিরিয়ায় গত দু দিনে সরকারী বাহিনী দু'শর ও বেশি লোককে হত্যা করার পর বিরোধী জাতীয় পরিষদ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ও আরব লীগকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

বিরোধী পরিষদ জাতিসংঘের জরুরী বৈঠকের আহ্বান জানিয়ে আজ বলেছে যে এতে যেন জাওইয়াহ পার্বত্যাঞ্চল , ইদলিব ও হমস এ সাম্প্রতিক হত্যাকান্ড নিয়ে আলোচনা করা হয়। তারা জাতিসংঘকে ঐ সব এলাকাকে নিরাপদ অঞ্চল ঘোষণা করতে বলেছে এবং সিরিয়ার বাহিনীকে প্রত্যাহার করতে বাধ্য করতে আহ্বান জানিয়েছে।

বিরোধী গোষ্ঠিগুলি বলছে যে গত ৪৮ ঘন্টায় সেখানে আড়াইশ লোক মারা গেছে। মার্চ মাসে সরকার বিরোধী আন্দোলন শুরু হবার পর এটি ছিল অন্যতম একটি মারাত্মক হামলা।

সিরিয়ান অবজারভেটারী ফর হিউমান রাইটস বলেছে যে সরকারী বাহিনী ঈদলিব প্রদেশে একটি গ্রাম ঘেরাও করে সক্রিয়বাদী সহ অসামরিক লোকজনকে আক্রমণ করেছে। ঐ গোষ্ঠিটি বলেছে যে একটি ঘটনায় নিরাপত্তা বাহিনী মসজিদের এক ইমামের শিরশ্ছেদ করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা অবজারভেটারীকে বলেছেন যে সৈন্যরা ইদলিবে সেনা ত্যাগকারী একটি দলকে ঘিরে ফেলে এবং প্রায় শ খানেক লোককে হয় হত্যা করেছে নয় আহত। অন্যান্য অঞ্চল থেকেও অসামরিক লোকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তবে অবজারভেটারীর এই দাবী নিরপেক্ষ ভাবে নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি কারণ সিরিয়ায় বিদেশি সাংবাদিকদের প্রবেশের উপর বিধিনিষেধ রয়েছে।

আরব লীগ কর্মকর্তারা বলছেন যে পর্যবেক্ষক মিশনের কাজ কর্মের প্রস্তুতির জন্যে একটি অগ্রবর্তী দল এরই মধ্যে সিরিয়া গিয়ে পৌছেছে। এই দলের মধ্যে রয়েছে নিরাপত্তা, আইন ও মানবাধিকার বিষয়ক বিশেষজ্ঞ।

XS
SM
MD
LG