অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট শর্মিলা বোস বিবেচনায় নেননি : আর্নল্ড জাইটলিন

  • আনিস আহমেদ

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট শর্মিলা বোস বিবেচনায় নেননি : আর্নল্ড জাইটলিন

ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে প্রখ্যাত সাংবাদিক ও লেখক আর্নল্ড জাইটলিন মুক্তিযুদ্ধের বস্তুনিষ্ঠ মূল্যায়নের সময়ে বলেন যে সম্প্রতি উড্রো উইলসান সেন্টারে অক্সফোর্ডের একজন গবেষক শর্মিলা বোস যে ভাবে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ব্যাখ্যা দিয়েছেন এবং তদানীন্তন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষে সাফাই গেয়েছেন সেটাকে তিনি বাস্তববিবর্জিত সত্যের অপলাপ বলে মনে করেন । বর্তমানে সংবাদমাধ্যমের পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান এডিটোরিয়াল রিসার্চ এন্ড রিপোটিং এসোসিয়েটস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর্নল্ড জাইটলিন ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে, এপি 'র একজন প্রধান সংবাদদাতা হিসেবে তৎকালীন পুর্ব পাকিস্তানে বাঙালিদের আন্দোলন দেখেছেন , ২৫ শে মার্চের কালরাত্রিতে তৎকালীন পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর অভিযানের কিছুটা তিনি দেখেছেন এবং এ সম্পর্কে ঢাকা ত্যাগের সঙ্গে সঙ্গে রিপোর্ট ও পাঠিয়েছেন। এই সাক্ষাৎকারে তিনি সেই ভয়াল রাতের কথা যেমন বলেছেন , তেমনি শর্মিলা বোসের Dead Reckoning: Memories of the 1971 Bangladesh War বইয়ে বর্ণিত ঘটনা ও ব্যাখ্যার সঙ্গে দ্বিমত প্রকাশ করেছেন। তিনি মনে করেন যে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পেছনে যে রাজনৈতিক , অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বাস্তবতা কাজ করেছে, সেটিকে তিনি বিচেনায় নেননি।

জাইটলিন,তাঁর এই সাক্ষাৎকারে বলেন যে শর্মিলা বোস বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের একটি মানবিক ইতিহাস রচনা করতে গিয়ে কার্যত পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর সাফাই গেয়েছেন, ক্ষেত্র বিশেষে তিনি তাদের গুণগান গেয়েছেন। ইয়াহিয়া খানের প্রশংসা তাঁর বইয়ে এই দৃষ্টিভঙ্গির একটি চরম দৃষ্টান্ত। তিনি তাঁর বইয়ে সংখ্যা নিয়ে ও বেশ কিছু কথা বলেছেন । যেমন ১৯৭০ এর নির্বাচনে তৎকালীন আওয়ামি লীগের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ সম্পর্কেও অঙ্কের হিসেব কষে দ্বিমত প্রকাশ করেছেন। কিন্তু তিনি এই বিষয়টি বিচেনায় নেননি যে তৎকালীন পুর্ব পাকিস্তানের বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠ লোকের সমর্থন ছিল আওয়ামি লীগ ও তার ছ দফা প্রস্তাবের প্রতি। জাইটলিনের মতে বইটি একপেশে এবং কোন ক্রমেইি এটি পান্ডিত্যের দাবি করতে পারে না।

XS
SM
MD
LG