অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জি টুয়েন্টি শীর্ষ বৈঠক প্রতিশ্রুতি ও আশবাদ প্রকাশে সমাপ্ত হলো

  • ভিওএ'র প্রতিবেদক

টরন্টোতে জি টুয়েন্টি নেতৃবৃন্দ।

টরন্টোতে জি টুয়েন্টি নেতৃবৃন্দ।

কানাডার টরন্টোতে জি টুয়েন্টি শীর্ষ সম্মেলন শেষে শিল্পন্নোত এবং বিকাশমুখী দেশের নেতারা এমন একটি পরিকল্পনা অনুমোদন করেছেন যার ফলে বিশ্বের সব চেয়ে দনী দেশগুলি আগামি তিন বছরের মধ্যে তার ঘাটতি অর্ধেকে নামিয়ে আনবে। সম্মেলন শেষে কানাডার প্রধান মন্ত্রী স্টিফেন হারপার এই পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন।
সংশ্লিষ্ট দেশগুলো অর্থনৈতিক পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে তাদের নিজস্ব গতিতে ঘাটতি কমাবে।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা যুক্তরাষ্ট্রের ঘাটতি ২০১৩ সালের মধ্যে অর্ধেক কমানোর লক্ষ্য অনুমোদন করেন তবে তিনি এই মর্মে উদ্বেগ ব্যক্ত করে বলেন বেশি তাড়াতাড়ি ব্যয় কমালে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ব্যাহত হতে পারে।
জি টুয়েন্টি নেতারা ২০১৬ সালের মধ্যে সুসম বাজেট প্রণয়নের প্রতিশ্রুতি ও দেন । এই প্রতিশ্রুতি অবশ্য বাধ্যতামূলক নয় ।
কানাডার শীর্ষ বৈঠকে গৃহীত এই প্রস্তাবে ২০১৩ সালের মধ্যে অর্ধেক কমিয়ে আনার সঙ্গে সঙ্গে , ২০১৬ সালের মধ্যে অর্থনীতির সংস্থিতির জন্য মোট জাতীয় আয়ের সঙ্গে সঙ্গতি রক্ষা করে ঋণের বোঝা কমানোর উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী স্টিফেন হার্পার বলেন জি-টুয়েন্টি ঘোষণায় অর্থনৈতিক প্রণোদনামূলক ব্যবস্থা অব্যাহত রাখার এবং ঋণের বোঝা গ্রহণের পদক্ষেপ নেওয়ার ব্যবস্থার কথা বলা হয়েছে।

সম্মেলনের নের্তৃবর্গ সকলেই এই উপলব্ধির কথা বলেছেন যে আর্থিক সংহতকরণই শেষ ব্যবস্থা নয় । জোরালো, টেকসই ও সুসম প্রবৃদ্ধির রূপরেখা তৈরির সঙ্গে সঙ্গে স্বল্প মেয়াদের চলমান প্রণোদনামূলক ব্যবস্থা ও অব্যাহত থাকবে।

এদিকে ইউরোপীয় নেতারা বাজারে ইউরো মুদ্রার প্রতি আস্থা ফিরিয়ে আনারও আশা ব্যাক্ত করেন।

XS
SM
MD
LG