অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

‘নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত থাকবে বিএনপি’


‘নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত
থাকবে বিএনপি’
পৌর নির্বাচনের প্রস্তুতি প্রায় চূড়ান্ত। আজ মধ্যরাত থেকেই নির্বাচনি প্রচারণা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বুধবার ২৩৪টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। এবারই প্রথমবারের মতো দলীয় ভিত্তিতে মেয়র নির্বাচন হচ্ছে। যদিও কাউন্সিলর নির্বাচিত হবেন অদলীয় ভিত্তিতে। নির্বাচনকে ঘিরে টানটান উত্তেজনা দেশজুড়ে। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের ওপর হামলা, সমর্থকদের হত্যা, প্রচারণায় বাধা দেয়া ও হুমকির মধ্যেই এ নির্বাচন হতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে ৭ জন মেয়র ও ১৩২ জন কাউন্সিলর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন। বিগত ৫ই জানুয়ারি নির্বাচন বর্জণ করলেও বিরোধী বিএনপি এ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। এই পটভূমিতে প্রচারণার শেষ মুহূর্তে সোমবার বিকালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। বেগম জিয়া শত অনিয়ম ও নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ এনে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনি যুদ্ধে অবিচল থাকার ঘোষণা দেন। বলেন, শাসক দল নির্বাচনের ওপর অশুভ প্রভাব বিস্তারের যে পরিকল্পনা করেছে তা শান্তিপূর্ণ উপায়ে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।
বেগম জিয়া সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে আবারও সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানান। বলেন, আর কত ভয়াবহ অবস্থা হলে নির্বাচন কমিশন সেনা মোতায়েনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করবে। বিএনপি নেত্রী বলেন, সরকার অনিয়মের মাধ্যমে জয়ী হয়ে বিশ্ববাসীকে দেখাতে চায় তাদের জনপ্রিয়তা রয়েছে। এজন্য তারা ছক তৈরি করেছে। খালেদা জিয়া বলেন, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অংশ হিসেবেই বিএনপি এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট:

XS
SM
MD
LG