অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সীমাবদ্ধতা সত্বেও বর্তমান বাজেটে ভৌত ও মানবিক উন্নয়নের দিকগুলো ইতিবাচক : ড সেলিম জাহান


বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী গতকাল জাতীয় সংসদে ২০১৩-১৪ অর্থ বাজেট পেশ করেছেন । বিশাল অঙ্কের এই বাজেট নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে অর্থনীতিবিদ এবং রাজনীতিকদের মধ্যেও। এই বাজেটকে কেউ বলছেন বিনিয়োগ বান্ধব বাজেট আবার কেউ বা বলছেন ,বাস্তবায়নের অযোগ্য উচ্চাভিলাষী বাজেট। প্রস্তাবিত এই বাজেট সম্পর্কেই বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ , নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচির দারিদ্র নিরসন বিষয়ক পরিচালক ড সেলিম জাহান ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তাঁর নিজস্ব মূল্যায়ন তুলে ধরেন।

তিনি বলেন যে এই বাজেটের প্রধান তিনটি বৈশিষ্ট রয়েছে। প্রথমত দিক নির্দেশনার ক্ষেত্রে । এ বাজেটে সমাজে সমতা আনার বিষয়টি প্রাধান্য পেয়েছে। তা ছাড়া উন্নয়নের ব্যাপারে নিজের উপর নির্ভরশীলতার কথা রয়েছে এবং প্রবৃদ্ধি বজায় রাখার ব্যবস্থা করার কথা ও বলা হয়েছে । দ্বিতীয়ত , বাজেটে ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি দেখানো হয়েছে , যদি ও মুদ্রস্ফিতি ও ৭ শতাংশ ঘটবে বরে মনে করা হচ্ছে তবে এটা এড়ানোর কোন উপায় নেই। আর তৃতীয় বৈশিষ্ট হচ্ছে যে এই বাজেটে ভৌত অবকাঠামো , যেমন পরিহন খাতে উন্নয়নের কথা বলা হয়েছে আবার যেমন সামাজিক অবকাঠামো যেমন শিক্ষা , তার মধ্যে একটা সামঞ্জস্য আনার চেষ্টা করা হয়েছে। আর এর ফলে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে শুধুমাত্র উন্নয়নই তরান্বিত হবে না , মানব উন্নয়ন ও তরান্বিত হবে। তিনি বলছেন যে আরও ইতিবাচক দিকগুলির মধ্যে রয়েছে শ্রম বাজারে কর্মরত নারীদের করের রেয়াত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। নারীদের সঞ্চয়পত্রের আয়ের ওপর ও রেয়াত দেওয়া হয়েছে। তা ছাড়া জেলাপর্যায়ে বাজেট দেওয়া হয়েছে, পরীক্ষা মূলক ভাবে টাঙ্গাইল জেলার পৃথক বাজেট দেওয়া হয়েছে যার ফলে ভবিষ্যতে বাজেটের বিকেন্দ্রীকরণ সম্ভব হবে।

ড সেলিম জাহান বাজেটের নেতিবাচক কয়েকটি দিক তুলে ধরেন । তিনি বলেন যে বাংলাদেশে বিনিয়োগ ঘটছে না আশানুরূপ ভাবে , বাংলাদেশে এখনো বিনিয়োগের হার ২০ শতাংশের নীচে। অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ না বাড়লে উন্নয়ন সম্ভব নয়। আওয়ামি লীগ নের্তৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের বাজেটে প্রতিশ্রুতি গুলি রাজনীতি দ্বারা পরিচালিত এই সমালোচনার জবাবে ড সেলিম জাহান বলেন যে বাজেট যদি উন্নয়ন মুখী হয় তা হলে তাতে নির্বাচনের আগের এই শেষ বাজেটে রাজনৈতিক প্রভাব থাকায় দোষের কিছু নেই। বাজেট এ সরকার প্রণয়ন করলেও , এর বাস্তবায়নের ভার পড়বে আগামি সরকারের ওপর এবং ক্ষমতাসীনরাই ক্ষমতায় আসবেন নাকি অন্যরা আসবেন সে রকম তোকোন নিশ্চয়তা নেই।

XS
SM
MD
LG