অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী সংঘর্ষে নিহত ৯ জন


বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফায় ইউনিয়ন পরিষদ ভোট চলাকালীন ও এরপরে দেশের বিভিন্ন স্থানে যে রক্তাক্ত সংঘর্ষ হয়েছে, তা পরের দিন অর্থাৎ শুক্রবারেও অব্যাহত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার আশুগঞ্জে ক্ষমতাসীন দলের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষ চলাকালে বাড়িঘর, দোকানপাট লুটপাট, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

মাদারীপুরে ৭ জন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। ঝিনাইদহে সহিংসতায় ৫ জন আহত এবং এ কারণে ঘটনাস্থলে সীমান্তরক্ষী বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

নাটোরে ১৫টি বাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে সংঘর্ষ চলাকালে। নির্বাচন ও পরের দিনের সংঘর্ষে এই পর্যন্ত ৯ জন নিহত হয়েছেন।

বাংলাদেশে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতার ঘটনায় ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, শান্তিপূর্ণ ও নিরাপদ পরিবেশে গণতন্ত্রের চর্চা হওয়া প্রয়োজন। গণতন্ত্রের সঠিক চর্চা করার জন্য ভোটাধিকার প্রয়োগ নিশ্চিত করা এবং সহিংসতা বন্ধে সরকার, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহ ও জনগণকে একযোগে কাজ করতে হবে।

আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত নির্বাচন কমিশনের তীব্র সমালোচনা করেছেন। এদিকে, বিএনপি বলেছে, পরিস্থিতির উন্নয়ন না হলে বিএনপি নির্বাচনে থাকবে কিনা তা ভেবে দেখতে হবে।

দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে ৬৩৯টি চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৪৩০টি, বিএনপি ৫৫ এবং স্বতন্ত্র ও অন্যান্যরা ১১৫টিতে বিজয়ী হয়েছেন। ৩৩টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা নির্বাচিত হন আগেই। ঢাকা থেকে আমীর খসরু।

XS
SM
MD
LG