অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শ্রমিক অধিকার, কারখানা সংস্কারের তাগিদ দিলেন আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিরা


বাংলাদেশে পোষাক কারখানায় সংষ্কার অব্যাহত রাখা এবং শ্রমিক নিরাপত্তা জোরদারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা- শ্রমিকদের ট্রেড য়ুনিয়ন করার অধিকার নিশ্চিত করার জন্যে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা- রিপোর্ট পাঠিয়েছেন এর ওপর ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

শ্রমিক অধিকার, কারখানা সংস্কারের তাগিদ দিলেন আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিরা:


বাংলাদেশে পোশাক কারখানায় সংস্কার অব্যাহত রাখা এবং শ্রমিক নিরাপত্তা জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা। তারা শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়ন করার অধিকার নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি হোটেলে সাসটেইনিবিলিটি কমপ্যাক্টের এক পর্যালোচনা বৈঠকে তারা এ আহবান জানান। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার প্রতিনিধিরা এতে অংশ নেন। বাংলাদেশ ছাড়াও ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডাসহ আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা এতে অংশ নেন। প্রতিষ্ঠার প্রায় দুই বছর পর অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিশেষভাবে পোশাক কারখানার বৈদ্যুতিক ও অগ্নি নিরাপত্তার ওপর জোর দেয়া হয়। পোশাকের মূল্য বাড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক ক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আহবান জানানো হয়। একইসঙ্গে পোশাক খাতের সংস্কারে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে বলেও দাবি করা হয়।
ওদিকে, বৈঠক শেষে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, দুই বছরে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। আলোচনায় সবাই তা স্বীকার করেছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং আইএলও বলেছে, তারা আমাদের সহযোগিতা করবে। আমরা সবার সহযোগিতা চাই। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি মাইকেল জে ডিলানি বলেন, এসোসিয়েশনের সংখ্যা, কারখানা সংস্কার ও শ্রমিক নিরাপত্তা আরও বাড়াতে হবে। সার্বিক মান বাড়ানোর তাগিদও দেন তিনি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি সান্দ্রা গ্যালিনা বলেন, শ্রমিক সংগঠনগুলোকে স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে।
ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট:

XS
SM
MD
LG