অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঢাকার বস্তিতে কাজ করে উইমেন অব দ্য ইয়ার


বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত বস্তির শিশুদের নিয়ে কাজ করে পর্তুগিজ মানব হিতৈষী মারিয়া কনসিকাও ‘উইমেন অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কারে ভুষিত হয়েছেন। বিশ্বখ্যাত জি কিউ ম্যাগাজিনের পর্তুগিজ সংস্করণ তাকে এ পুরস্কার দেয়।

মারিয়া কনসিকাও ‘মারিয়া ক্রিস্টিনা’ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা। ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, কনসিকাও এ পুরস্কার নিজের পালক মা মারিয়া ক্রিস্টিনাকে উৎসর্গ করেছেন। ঢাকার আজমপুরের গাওয়াইর বস্তির ১৭২ জন সুবিধা বঞ্চিত শিশুকে সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে তার মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত ফাউন্ডেশনটি।

পুরুষদের ফ্যাশন সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল ভিত্তিক সাময়িকী জি কিউ সাধারণত ‘ম্যান অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কার দিয়ে থাকে। তবে মারিয়া ক্রিস্টিনা ফাউন্ডেশনের এক বিবৃতিতে এর ব্যাখ্যা দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়, মারিয়ার অর্জন নিয়ে জি কিউ পর্তুগাল এতোটাই অভিভূত যে সাময়িকীটির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ‘ম্যান অব দ্য ইয়ার’ প্রদানের বদলে একজন নারীকে সম্মানীত করা হয়েছে।

মারিয়া কনসিকাও এক সময় বিমানবালা হিসেবে কাজ করতেন। ওই সময় বাংলাদেশের বস্তিগুলোতে চরম দারিদ্র প্রত্যক্ষ করেন তিনি। এরপরই ২০০৫ সালে মারিয়া ক্রিস্টিনা ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। ২০০৩ সালে নিজের চাকরি সূত্রে প্রথম বাংলাদেশে আসেন তিনি। তার ভাষ্য, এই সময়ে তিনি যা দেখেছিলেন তা কখনও ভুলতে পারেননি। এক মাস পর সুবিধা বঞ্চিত মানুষজনকে সাহায্য করার অঙ্গিকার নিয়ে বাংলাদেশে ফিরে আসেন তিনি। লন্ডন থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

XS
SM
MD
LG