অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশ এখন জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে সর্বোচ্চ সেনা প্রেরণকারী দেশ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • সরকার কবীরূদ্দীন

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৫তম অধিবেশনে ভাষণ দিচ্ছেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৫তম অধিবেশনে ভাষণ দিচ্ছেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৫তম অধিবেশনে ভাষণ দেন। তিনি, বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি, জাতিসংঘে তার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেওয়া ভাষণ, বাংলাদেশে সন্ত্রাসবাদ দমন, জাতিসংঘের শান্তি মিশনে বাংলাদেশের অংশগ্রহন, বিশ্বঅর্থনৈতিক মন্দা ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয় বক্তব্য রাখেন।

শেখ হাসিনা বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধিতে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ক্ষতির কথা উল্লেখ করেন এবং বলেন, এর ফলে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা, আবাসন ও জীববৈচিত্র হুমকির মুখে। এই হুমকি মোকাবেলায় গঠিত তহবিলে বিশ্ব সম্প্রদায়কে উদার হাতে অনুদান প্রদানের আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, ৩৬ বছর আগে জাতির পিতা এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই মঞ্চে দাঁড়িয়ে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা ও মানবতার সেবায় জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করেছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আজ একটি উদার, প্রগতিশীল এবং গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। জাতিসংঘের সক্রিয় অংশগ্রহণকারী এবং দায়িত্ববান সদস্য। বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্র, মানবাধিকার, শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘের সকল উদ্যোগের প্রতি বাংলাদেশ পূর্ণ সমর্থন ও সহযোগিতা দিয়ে আসছে।

শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকারের অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিত করা। এলক্ষে তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োজনীয় অবকাঠামো তৈরি এবং সবার কাছে তথ্যপ্রযুক্তি সেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাকে জাতিসংঘের অন্যতম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে গ্রহণ করার অনুরোধ জানান।

XS
SM
MD
LG