অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পর আন্দোলনে নেমেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা। বেতন কাঠামোকে বৈষম্যমূলক অভিহিত করে তা সংশোধনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন তারা।

দাবি আদায় না হলে ১১ই জানুয়ারি থেকে লাগাতার কর্মবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষকরা। অন্যদিকে, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন ১৫ই জানুয়ারি থেকে তারা গণছুটিতে যাবেন। তাদের ভাষায় অসঙ্গতি-বৈষম্য দূর করার দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের ডাকে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত শিক্ষকরা কর্মবিরতি পালন করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে দুই শতাধিক শিক্ষক অংশ নেন। শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের মহাসচিব অধ্যাপক মাকসুদ কামাল বলেছেন, শিক্ষকদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। দাবি মেনে নেয়া না হলে লাগাতার কর্মবিরতিতে যাওয়া ছাড়া শিক্ষকদের আর কোন বিকল্প থাকবে না।
জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের ৩৭টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একই কর্মসূচি পালিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষক নেতারা।

ওদিকে, নতুন বেতন কাঠামোর পদ বৈষম্য দূর করাসহ তিন দফা দাবিতে কর্মবিরতি পালন করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সকল কাজ বন্ধ রেখে তারা সকাল ১০টা থেকে এক ঘন্টা ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের চত্বরে অবস্থান করেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের অভিযোগ অষ্টম জাতীয় বেতন স্কেলে তাদের মর্যাদাহানি করা হয়েছে। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

XS
SM
MD
LG