অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

তামিম-জিয়াউল গুলশান, শোলাকিয়া ও কল্যাণপুর সন্ত্রাসী হামলার মূল পরিকল্পনাকারী


বাংলাদেশের পুলিশ গুলশান, শোলাকিয়া ও কল্যাণপুর সন্ত্রাসী হামলার মাস্টারমাইন্ড বা মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত কানাডীয় নাগরিক তামিম চৌধুরী এবং সেনা অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার দায়ে চাকরিচ্যুত মেজর সৈয়দ জিয়াউল হককে চিহ্নিত করেছে।

আর এদের ধরিয়ে দেয়ার জন্য তথ্য দিতে পারলে প্রতিজনের জন্য ২০ লাখ টাকা করে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। পুলিশ প্রধান মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন।
কানাডীয় পত্রিকা ন্যাশনাল পোস্টসহ আন্তর্জাতিক কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমের মতে, তামিম চৌধুরীই ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর বাংলাদেশ অংশের খলিফা আবু আল ইব্রাহিম। ২০১৩ সালে তিনি কানাডা ছেড়ে আন্তর্জাতিক জঙ্গী তৎপরতায় যোগ দেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিলেটে জন্মগ্রহণকারী তামিম চৌধুরী বর্তমানে দেশের মধ্যে, না বিদেশে রয়েছেন তা স্পষ্ট নয়। তবে বাংলাদেশ পুলিশের মতে, তিনি জামাআতুল মোজাহেদীন বাংলাদেশ বা জেএমবি’র ঊর্ধ্বতন নেতা। আর অপরজন বহিষ্কৃত মেজর জিয়াউল হক আনসার আল ইসলামের সাথে যুক্ত বলে পুলিশ মনে করে।
এদিকে, ভারতীয় নাগরিক জাকির নায়েকের আদর্শে পরিচালিত বাংলাদেশের পিস স্কুলের ঢাকাসহ দেশের সকল শাখা বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঢাকার ১০টি সহ সারাদেশে ২০টির মতো পিস স্কুল রয়েছে। ঢাকা থেকে আমীর খসরু।

XS
SM
MD
LG