অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রিটিশ গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের সিদ্ধান্তের পর ব্রিটেনে আজ শনিবার সকালকে অনেকেই ভেবেছেন এ যেন এক নেশার ঘোরে ঘুম ভাঙ্গা সকাল। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগের এই সিদ্ধান্তকে অনেক বিশ্লেষকই আর্থিক ও রাজনৈতিক ভূমিকম্প বলে বর্ণনা করেছেন।

বৃহস্পতিবারের ভোটের আগে জনমত জরিপে দেখা গিয়েছিল ই.ইউতে থাকার পক্ষ সমর্থনকারীরা এগিয়ে আছেন । তবে শুক্রবারের ফলাফল সবাইকে বিস্মিত করেছে , এমন কী তাদেরকেও যারা ২৮ জাতির সমন্বয়ে গঠিত ঐ ব্লক থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছিলেন।

যারা এই জোটে থাকার পক্ষে ছিলেন , তাদের তরফ থেকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ক্ষোভ এবং উ্দ্বেগ প্রকাশ করা হয়, তারা টুইটারের হ্যাশ ট্যাগে লিখেছেন , #whathavewedone. এমন কী একটা কার্টুনে গ্লোবে একমাতো ব্রিটিশ দ্বীপ পুঞ্জকে দেখানো হয়েছে । বলা হচ্ছে আমরা এখন মুক্ত তবে আমাদের সমস্যার জন্য কাকে দোষারোপ করবো ?

কোন কোন সংবাদ মাধ্যম regrexit,” বলে একটি নতুন শব্দ ব্যবহার করছে যার মানে হচ্ছে যারা ই.ইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছিলেন , তারা এখন অনুশোচনা করছেন। তবে অভিবাসন ও সার্বভোমত্বের ব্যপারে ক্ষুব্ধ হয়ে অনেকেই ই,ইউ ত্যাগ করা সমর্থন করেন।

XS
SM
MD
LG