অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বার্মার সরকার এবং কাচিন জাতিগোষ্ঠী বিদ্রোহীদের মধ্যে সাময়িক একটি অস্ত্র চুক্তি



বার্মার সরকার এবং কাচিন জাতিগোষ্ঠী বিদ্রোহীদের মধ্যে দুই বছর ধরে চলতে থাকা লড়াই অবসানের লক্ষ্যে সাময়িক একটি অস্ত্র চুক্তি হয়েছে। ঐ লড়াইএ প্রায় এক লক্ষ্যেরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

তিনদিনের আলোচনা শেষে চুক্তি সম্পন্ন হয়। চুক্তিতে বলা হয়েছে লড়াই বন্ধ করা হবে এবং কাচিন যে আরো রাজনৈতিক অধিকার এবং স্বায়ত্বশাসন দাবী করছে সে বিষয়গুলো ভবিষ্যতে আলোচনা হবে।


বৃহস্পতিবার, বার্মার উত্তরাঞ্চলে অনুষ্টিত আলোচনায় জাতিসংঘ এবং চীনা সরকারের প্রতিনিধিসহ বার্মার অন্যান্য সংখ্যালঘু জাতিগোষ্ঠীর প্রতিনিধিও উপস্থিত ছিলেন।

চীনা কূটনীতিক লু জুই বলেন, “আমি মনে করি মায়ানমারের শান্তি আলোচনা তাদের অভ্যন্তরিণ বিষয়। চীনের জন্য এটা হচ্ছে আমরা মায়ানমারের প্রতিবেশি এবং বন্ধু। আমাদের সরাসরি স্বার্থর কথা বাদ দিয়ে এভাবে বলা যায় আমরা দুপক্ষ্যের অনুরোধে মায়ানমারের সার্বভৌমত্বের প্রতি পূর্ণ সম্মান রেখে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেব।”

কাচিন বার্মার একমাত্র প্রধান জাতি গোষ্টী যারা দু-হাজার ১১ সালে প্রসিডেণ্ট থেইন সেনের সংস্কারপন্থী সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর অস্ত্র বিরতী চুক্তিতে সাক্ষর করেনি।
XS
SM
MD
LG