অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শ্রোতাদের জিজ্ঞাসা আর আমাদের জবাবেব এই সা্প্তাহিক আয়োজন হ্যালো ওয়াশিংটনে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম। আমাদের আজকের কল ইন শো , হ্যালো ওয়াশিংটনের বিষয় হচ্ছে জাতিসংঘে বাংলাদেশের চল্লিশ বছর যেমনটি আমরা সকলেই জানি যে আজ থেকে চল্লিশ বছর আগে ১৭ই সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে , যদিও এই বিশ্বসভার সঙ্গে বাংলাদেশের যোগাযোগ গোড়া থেকেই। মূলত চীনের ভিটো প্রযোগের কারণেই জাতিসংঘে বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভ বিলম্বিত হয়। ১৯৭৪ সালের ২৫শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী , জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান , জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে প্রথম ভাষণ দেন । বিশ্ব পর্ষদে এই প্রথম বাংলা ভাষায় বক্তব্য রেখে বঙ্গবন্ধু তাঁর ভাষণে বলেন যে বাংলাদেশ মূলত যে সব আদর্শকে সামনে রেখে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছিল , সেই ন্যায় বিচার ও মানবিক মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখার আদর্শ জাতিসংঘেরও আদর্শ।

সেই থেকে চল্লিশ বছর ধরে বাংলাদেশ জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে অত্যন্ত সক্রিয় ভূমিকা পালন করে এসছে। একদিকে যেমন বিশ্বজুড়ে জাতিসংঘের শান্তি রক্ষী বাহিনীতে বাংলাদেশ বড় রকমের অবদান রাখছে , অন্যদিকে ঠিক তেমনি ,শিক্ষা , স্বাস্থ্য , নারী ও শিশুদের উন্নয়নসহ জাতিসংঘের বহু প্রকল্প বাংলাদেশের উন্নয়নে সাহায্য করছে। মিলিনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল বা সহাস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের বেশ কিছু বিষয়ে বাংলাদেশ সাফল্যের প্রমাণ রেখেছে এবং অন্যান্য বিষয়ে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রয়েছে। এই চল্লিশ বছরের খতিয়ান মূল্যায়নের জন্যে আমাদের আজকের কল ইন শো ।

আজ আমাদের অতিথীদের মধ্যে রয়েছেন , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান , ভূগোল বিভাগের অধ্যাপক , ড নজরুল ইসলাম , রয়েছেন বাংলাদেশে উন্নয়ন গবেষণা কেন্দ্র বা Bangladesh Institute of Development Studies ‘এর Senior Fellow ড নাজনীন আহমেদ আরও আছেন , American Public University System এর, School of Security & Global Studies , এর Adjunct Faculty ড সাঈদ ইফতিখার আহমেদ । এবার আমরা সরাসরি প্রশ্ন উত্তরের পর্বে চলে যাচ্ছি।

XS
SM
MD
LG