অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হ্যালো ওয়াশিংটন :বিজয়ের বিয়াল্লিশ বছর:প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা

  • আনিস আহমেদ

প্রাপ্তি ও প্রত্যাশাই বলুন বা সাফল্য ও ব্যর্থতা যাই-ই বলুন না কেন এ নিয়ে অমাদের আজকের কল ইন শো ।
১৯৭১ সালে একটি সফল মুক্তিযুদ্ধের পর ১৬ই ডিসেম্বর যে বিজয় অর্জিত হয় , তারই ৪২ বছর পূর্তি হলো এই তো মাত্র দু দিন আগে । এই বিজয়ের বিয়াল্লিশ বছরে বাংলাদেশের প্রাপ্তি কতটুকু ঘটেছে , প্রত্যাশাই বা কি ছিল , কি আছে সামনে এ সব নিয়ে হিসেব নিকেশ আজকের এই আপনাদের জিজ্ঞাসা আর আমাদের জবাবের এই আয়োজনে ।
আজ আমাদের বিশেষজ্ঞ –অতিথি প্যানেলে টেলিসম্মিলনী লাইনে যোগ দিয়েছেন নিউ ইয়র্ক থেকে : জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির দারিদ্র বিমোচন বিভাগের পরিচালক , বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড সেলিম জাহান। । রয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য , বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক আব্দুল মান্নান । অধ্যাপক মান্নান ফোর্ট উইলিয়ামে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেওযার জন্যে বর্তমানে কোলকাতায় রয়েছেন । তিনি কোলকাতা থেকে আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। রয়েছেন ঢাকা থেকে ড মেঘনা গুহ ঠাকুরতা , আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সাবেক অধ্যাপক , বর্তমানে রিসার্চ ইনিশিয়াটিভ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক । ড মেঘনা গুহ ঠাকুরতা আপনাকে স্বাগতম।
এই কল ইন শোতে আমাদের প্রশ্নকারীরা বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করেন। তাঁরা বাংলাদেশে গত বিয়াল্লিশ বছরের প্রাপ্তির মধ্যে যুদ্ধাপরাধীর বিচারের রায় বাস্তবায়নের সূচনা এবং অর্থনীতি ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সাফল্য । কিন্তু তার পাশাপাশি রাজনৈতিক বাদ প্রতিবাদ , সংঘাত ও দ্বন্দ্বের কথা উঠে আসে । অতিথী বিশেষজ্ঞরা বাংলাদেশে গণতন্ত্র বিস্তারে বাধা, সামরিক শাসন এ সব প্রসঙ্গও উল্লেখ করেন। জাতীয় চার নীতি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা; গণতন্ত্র এবং ধর্মনিরপেক্ষতা যে সমাজের মধ্যে গ্রথিত হতে পারেনি সে কথা ও উঠে আসে । একদলীয় নির্বাচন যেমন গ্রহণযোগ্য নয় সে কথা যেমন আলোচিত হয় , তেমনি আলোচনায় আসে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কথাও । এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী নয় কিংবা মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী দলগুলো নিষিদ্ধকরণের দাবিও উঠে আসে।


XS
SM
MD
LG