অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বুধবার ১৭ই সেপ্টেম্বর হ্যালো ওয়াশিংটনের বিষয় “বাল্য বিবাহ নিরসণে করণীয়”।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ সম্প্রতি এক রিপোর্টে উল্লেখ করেছে যে, দক্ষিণ এশিয়ায় অর্ধেক নারীকেই প্রাপ্ত বয়স্ক হবার আগেই বিয়ে পিঁড়িতে বসতে বাধ্য করা হয়। এছাড়া জাতিসংঘ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা দক্ষিণ এশিয়ার ৪৬ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয় ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার আগে অর্থাৎ তা বাল্য বিবাহ।আর এই বাল্য বিবাহের হার দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি; যা ৬৫ শতাংশ। এর পরেই রয়েছে ভারত- ৪৩ শতাংশ। এছাড়া নেপালে ৪১ শতাংশ, আফগানিস্তানে ৪০ শতাংশ, ভূটানে ২৬ শতাংশ, পাকিস্তানে ২৪ শতাংশ, শ্রীলঙ্কায় ১২ শতাংশ এবং মালদ্বীপে ৪ শতাংশ।

বাল্য বিবাহ নিয়ে প্রচলিত আইন সংস্কার করে নতুন আইন করা যায় কিনা সে বিষয়ে সম্প্রতি আলোচনা চলছে বাংলাদেশে। আর সে কারনেই এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা।

আলোচনায় অংশ নেন ঢাকার আইন ও শালিশ কেন্দ্রের উপ-পরিচালক, মানবাধিকার কর্মী, আইনজীবি এ্যাডভোকেট সানায়া ফাহিম আনসারী এবং ভারতের দি হিন্দু পত্রিকার সাবেক উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় ব্যুরো চীফ জ্যোষ্ঠ সাংবাদিক বরুণ দাশগুপ্ত।

এ্যাডভোকে সানায়া ফাহিম আলোচনার শুরুতেই বাংলাদেশে বাল্য বিবাহের প্রচলিত আইন এবং এ আইন সংস্কারের নতুন যে ড্রাফট করা হয়েছে ‘চাইল্ড ম্যারেজ রেস্ট্রেইন্ট এ্যাক্ট-২০১৪’ নামে সে সম্পর্কে স্রোতাদের জানান।

একইভাবে ভারতে বাল্য বিবাহের প্রচলিত আইন সম্পর্কে জানান বরুণ দাশগুপ্ত। আলোচনা চলাকালে বিভিন্ন স্থান থেকে ফোন করে স্রোতারা প্রশ্ন করেন। আলোচকরা সেসব প্রশ্নে উত্তর দেন।

আসুন শোনা যাক আজকের হ্যালো ওয়াশিংটন।

XS
SM
MD
LG