অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আগামী মার্চেই ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন শুরু


আগামী মার্চেই ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন শুরু
সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটালেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। বললেন, আর সংশয়ের কিছুই নেই। আগামী বছরের মার্চে ব্রেক্সিট জনরায় বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া শুরু হবে.

গত জুনে এক ঐতিহাসিক গণভোটে বৃটিশ জনগণ ২৮ জাতির ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হওয়ার পক্ষে তাদের মতামত জানিয়ে দেন। এরপর থেকে বৃটিশ জনগণের মধ্যে দ্বিধা-দন্দ্ব ছিল। কারণ রাজনীতিকরা একেক সময় একেক কথা বলছিলেন। এমনকি ব্রেক্সিট পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’ও খোলাসা করেননি কখন তিনি এ জোট ছাড়বেন। রোববার সকালে বার্মিংহামে কনজারভেটিভ পার্টির কনফারেন্সে যাওয়ার আগে সংবাদ মাধ্যমের কাছে তার অবস্থান পরিস্কার করেন। বলেন, প্রক্রিয়াটি এতো সহজ নয়। বেশ জটিল। তবুও লিসবন চুক্তির ৫০ অনুচ্ছেদ বৃটেনকে কার্যকর করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী জানান, বৃটেনের রাণীর পরবর্তী ভাষণে ‘গ্রেট রিপিল বিল’ নামে নতুন একটি বিল উত্থাপন করা হবে। ৪৪ বছর আগে যে আইনের বলে বৃটেন ইউরোপীয় ইউনিয়নে প্রবেশ করেছিল, এই বিল ওই আইনকে অকার্যকর করবে। বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, অভিবাসনের ওপর নিয়ন্ত্রণের পক্ষেই বৃটিশ জনগণ ভোট দিয়েছিলেন। তাই বড় প্রশ্ন হলো, এই নিয়ন্ত্রণ ফিরে পাওয়ার বিনিময়ে ইইউ সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে অবাধ বাণিজ্যে বৃটেনকে কতটুকু ছাড় দিতে হবে। জাপানি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নিশান গত সপ্তাহে জানিয়েছে যে, বিশাল ইইউ মার্কেটে বৃটেনের প্রবেশাধিকার কতটুকু থাকবে তার ওপর নির্ভর করবে বৃটেনে কোম্পানিটির বিনিয়োগ।

XS
SM
MD
LG