অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ক্লিন্টন ও ট্রাম্প ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের ২৯টি ইলেক্ট্ররাল ভোট লাভের জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর মাত্র দু সপ্তাহ বাকি আছে এবং এখন রিপাবলিকান প্রার্থি ডনাল্ড ট্রাম্প এবং ডেমক্র্যাট হিলারি ক্লিন্টন ফ্লোরিডা অঙ্গ রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারাভিযান চালাচ্ছেন। ফ্লোরিডা হচ্ছে এমন একটি রাজ্য যা উভয় প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থির জন্য গুরুত্বপূর্ণ । সেখানে ২৯টি ইলেক্টরাল ভোট আছে , যা কীনা হোয়াইট হাউজে যাবার জন্য ১০ শতাংশ ভোটের বেশি , সেটি উভয় প্রার্থি পেতে চাইছেন। চার বছর পর পর ইলেক্টরাল কলেজের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের এই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জাতীয় সাধারণ ভোটের চাইতে সব চেয়ে জনবহুল রাজ্যগুলোই ফলাফলকে প্রভাবিত করতে পারে ।

ফ্লোরিডার জরিপগুলোতে দেখা যাচ্ছে দেশের প্রথম মহিলা প্রেসিডেন্ট হতে আশাবাদী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টন ট্রাম্পের চাইতে প্রায় চার পয়েন্টে এগিয়ে আছেন। ফ্লোরিডার প্রায় ১৬ লক্ষ ভোটদাতা এরই মধ্যে আগাম নির্বাচনে হয় নির্বাচন কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিয়েছেন , নয়ত ডাক মারফত ভোট দিয়েছেন।

আবাসন ব্যবসার ধনকুবের ট্রাম্প , ফ্লোরিডার সমুদ্রের ধারে যাঁর অট্রালিকা রয়েছে তিনি বলছেন এটা সম্ভবত সত্যি কথা যে ফ্লোরিডায় জয়লাভ না করলে তিনি হয়ত দেশের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন না। জনমত জরিপে দেখা যা্ছে গোটা দেশে তিনি প্রায় ৫ শতাংশ পয়েন্টে ক্লিন্টনের চাইতে পিছিয়ে আছেন । ট্রাম্প অন্যান্য প্রতিযোগিতামুলক রাজ্যেও ক্লিন্টনের চাইতে পিছিয়ে পড়ছেন। ট্রাম্প তিনদিন ধরে ফ্লোরিডা রাজ্যের সাতটি শহর সফর করছেন , ভোটদাতাদের বলছেন যে এই সব জরিপ হচ্ছে ফাঁকা বুলির মতো।

তিনি বলছেন যে ক্লিন্টনের নির্বাচনী প্রচার অভিয়ানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে জাতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো একটি কারচুপির নির্বাচনে যোগ দিচ্ছে। তবে সেটা কিভাবে হতে পারে তার কোন প্রমাণ তিনি দেননি।

XS
SM
MD
LG