অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাপানের পারমানবিক স্থাপনায় তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ নিয়ে বিভ্রান্তি


জাপানের পারমানবিক স্থাপনায় তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ নিয়ে বিভ্রান্তি

জাপানের পারমানবিক স্থাপনায় তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ নিয়ে বিভ্রান্তি

জাপানের উত্তরাঞ্চলে ক্ষতিগ্রস্ত ফুকুশিমা-দায়িচি বিদ্য্যুৎ স্থাপনার পরিচালক বলছেন যে তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা , স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে এক কোটি গুণ বৃদ্ধি পাবার খবরটি ভুল।

এর আগে একটি টার্বাইন ইউনিটে জমে থাকা জলে উচ্চ মাত্রার তেজস্ক্রিয়তা পাবার পর , দু নম্বর চুল্লির ঐ ভবন থেকে জরুরী কর্মিদের সরিয়ে নেওয়া হয়। কর্তৃপক্ষ বলছে যে নতুন করে মূল্যায়নের উদ্যাগ নেওয়া হয়েছে তবে এটা পরিস্কার নয় যে কখন সেই ফলাফল পাওয়া যাবে এবং তা প্রকাশ করা হবে। গত সপ্তায় ঐ স্থাপনার তিন নম্বর চুল্লিতে , স্বাভাবিকের চেয়ে ১০ হাজার গুণ বেশি তেজস্ক্রিয়তা লক্ষ্য করা যায়।

সেখানকার পারমানবিক এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানের সুরক্ষা বিষয়ক উপ মহাপরিচালক হিদেহিকো নিশিয়ামা বলছেন যে সমুদ্রের পানিতে আইয়োডিনের 131 এর মাত্রা এখন আইনত যে মাত্রায় থাকার কথা তার চেয়ে ১৮৫০ গুণ বেশি পাওয়া গেছে যা গতকালকের ১২৫০ গুণের চেয়ে ও বেশি। তবে তিনি বলছেন যে এই মাত্রার , মানুষের স্বাস্থের জন্যে তাৎক্ষনিক কোন বিপদ সৃষ্টি করছে না।

তবে সমুদ্রজলের দূষণ হচ্ছে এ ব্যাপারে সর্বসাম্প্রতিক আভাষ যে গাছ পালা থেকে তেজস্ত্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ছে।

মন্ত্রী পরিষদের মুখ্য চিব ইউকি এদানো আজ টেলিভিশনের একটি টক শো তে বলেছেন যে ঐ চুল্লির ভেতর থেকে তেজস্ক্রিয় জল চুইয়ে পড়ছে।

XS
SM
MD
LG