অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র সেনেটে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক সমঝোতা এবং গার্মেন্ট শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে শুনানী

  • রোকেয়া হায়দার

আজ যুক্তরাষ্ট্র সেনেটে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক সমঝোতা এবং গার্মেন্ট শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে শুনানী চলছে। শুনানীতে সভাপতিত্ব করছেন সেনেটার মেনেন্ডেজ।

সেনেটের ডার্কসেন ভবন থেকে এ সম্পর্কে জানাচ্ছেন রোকেয়া হায়দার।

সেনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ে কমিটির এই শুনানীতে, বয়ান রাখছেন যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দফতরে দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিভাগের অ্যাসিসটেন্ট সেক্রেটারি নিশা দেশাই বিসওয়াল। শ্রম বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি আন্ডার সেক্রেটারী এরিক বিয়েল, আরও রয়েছেন এলেন টসার Alliance for Bangladesh Workers Safetyর পরিচালক মণ্ডলীর সভাপতি এবং বাংলাদেশ শ্রমিক নিরাপত্তা বিষয়ে নির্বাহী পরিচালক - কল্পনা আখতার।

Kalpona Akter

Kalpona Akter

সেনেটার মেনেণ্ডেজ সভাপতিত্বে এই শুনানীর শুরুতে তিনি বলেন, ‘এই কমিটি গত বছরও রাণা প্লাজা ভেঙে পড়ে শত শত শ্রমিকের প্রানহানি, তাজরীন পোশাক কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের এক বছর পূর্তিতে বাংলাদেশে শ্রমিক সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেছে’। সেনেটার বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্য হচ্ছে – ‘বাংলাদেশে একটি সার্বজনীন মান নির্ধারণ করা’। সেনেটের বৈদেশিক সম্পর্ক বিষয়ে কমিটির এই শুনানীতে বয়ান রাখেন যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র দফতরে দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিভাগের সহকারী পররাষ্ট্র মন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। শ্রম বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি আন্ডার সেক্রেটারী এরিক বিয়েল, আরও ছিলেন এলেন টসার Alliance for Bangladesh Workers Safetyর পরিচালক মণ্ডলীর সভাপতি এবং বাংলাদেশ শ্রমিক নিরাপত্তা বিষয়ে নির্বাহী পরিচালক - কল্পনা আখতার।দুটি প্যানেলে বক্তব্য রাখা হয়। গনতান্ত্রিক সমঝোতার সম্ভাবনা বিষয়ে - নিশা দেশাই বিসওয়াল ও এরিক বিয়েল এবং শ্রমিকদের নিরাপত্তাবিধান সংক্রান্ত শুনানীতে বক্তব্য রাখেন এলেন টসার ও কল্পনা আখতার।

নিশা দেশাই বিসওয়াল বলেন, ৫ই জানুয়ারীর নির্বাচনে দেশের সকল জনগনের মতামতের পূর্ণ প্রতিফলন দেখা যায়নি। তিনি বাংলাদেশের শ্রমিকদের নিরাপত্তা বিষয় তুলে ধরে আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখার আহ্বান জানান। সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের জন্য কৌশলগত দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশ। বিশ্বের জনবহুল দেশের মধ্যে সপ্তম এবং মুসলিম প্রধান রাষ্ট্রের মধ্যে তৃতীয় বৃহত্ দেশ। বাংলাদেশের প্রায় ৮হাজার সৈন্য, দক্ষিণ সুদানসহ, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা বাহিনীতে কাজ করছেন। উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ একটি সফল দেশ। প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রধান তিনটি উন্নয়ন লক্ষ্য মাত্রা – বিশ্ব স্বাস্থ্য, বৈশ্বিক জলবায়ূ পরিবর্তন এবং ভবিষ্যতে সমস্যা নিরসন, এই লক্ষ্যমাত্রার অন্যতম দেশ’। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ সরকার ও বিরোধী দলের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখে সেখানে মানবাধিকার রক্ষা, সুশীল সমাজের বিকাশ, আইনের শাসন ও বিচার বিভাগকে স্বতন্ত্র মর্যাদারক্ষার লক্ষ্যে, গনতান্ত্রিক নীতিমালা ও কর্মসুচী উত্সাহিত করবো’।

শুনানীতে অপর বক্তারা, বাংলাদেশের গনতান্ত্রিক ধারা অক্ষুণ্ণ রাখা এবং শ্রমিকদের অধিকার – সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সরকার ও বিদেশী ক্রেতাদের আরও যত্নবান হওয়ার আহ্বান জানান।

মাত্র ১২বছর বয়সে শিশু শ্রমিক হয়ে তৈরী পোশাক কারখানায় কাজ করতে গিয়ে কল্পনা আখতার তার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। বর্তমানে শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে নিয়োজিত কল্পনা বাংলাদেশের পোশাক তৈরীর কারখানায় অগ্নিকাণ্ড, নিম্ন বেতন, শ্রমিকদের হয়রানি, সুযোগ সুবিধার অভাব, সেইসঙ্গে শ্রমিকদের অভিযোগ মেটাতে সরকার ও বিদেশী ক্রেতা প্রতিষ্ঠান কি করতে সক্ষম সে কথাই তুলে ধরেন। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছে তার আবেদন – বাংলাদেশের জিএসপি সুবিধা পুনরবহালের আগে যুক্তরাষ্ট্র সরকরের উচিত, শ্রমিক ইউনিয়ন করার অধিকার নিশ্চিত করা, কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ সরকারের ব্যবস্থা গ্রহণ, আমিনুল ইসলামের হত্যাকাণ্ড তদন্তের স্বচ্ছতা বিধান করা এবং শ্রম আইনের সংস্কার সাধন করা।

রোকেয়া হায়দার ভয়েস অফ আমেরিকা সেনেট ডার্কসেন ভবন।
XS
SM
MD
LG