অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গুম বাংলাদেশের প্রাতিষ্ঠানিক চর্চা: বলছে গুম বিরোধী আন্তর্জাতিক জোট আইসিএইডি


গুম হওয়া ব্যক্তিদের স্মরণে ২০১৬ সালের আন্তর্জাতিক সপ্তাহ উপলক্ষে জোরপূর্বক গুম বিরোধী আন্তর্জাতিক জোটের আইসিএইডি এর এক বিবৃতিতে গুমকে বাংলাদেশের প্রাতিষ্ঠানিক চর্চা হিসেবে আখ্যা দেয়া হয়েছে।

প্রতি বছর মে মাসের শেষের দিকে এ সপ্তাহটি পালন করা হয়। গুমের অপরাধ মহামারী আকার ধারণ করেছে বলে উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয় বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের যে ধারা সৃষ্টি হয়েছে এটা তার অংশ। আইসিএইডি অভিযোগ করেছে বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে বেশির ভাগ গুমের ঘটনা ঘটেছে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে যেখানে সরকার বিরোধী রাজনৈতিক গ্রুপ এবং সুশীল সমাজের কর্মীদের কণ্ঠরোধ করতে রাষ্ট্রীয় যন্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। সংস্থাটি আরও অভিযোগ করেছে নিজেদের রাজনৈতিক পরিচয় এবং বিরোধী রাজনৈতিক গ্রুপগুলোর সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কারণে ভুক্তভোগীরা গুমের শিকার হচ্ছেন।

বিবৃতিতে বলা হয় বাংলাদেশে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৬ সালের এপ্রিল পর্যন্ত মোট ২৫৮ জন গুম হওয়ার অভিযোগ রয়েছে যার মধ্যে ৩৭ জনকে গুমের পর মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়, ১০৫ জনকে গুম হওয়ার অনেক দিন পর বিভিন্ন ফৌজদারি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয় এবং ১১৬ জনের অবস্থা এখনও অজানা।

XS
SM
MD
LG