অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ডনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট।


ডনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট।

কোটিপতি-ব্যবসায়ি- যাঁকে ব্যাপক বিস্তৃতভাবেই বড়ো একটা কেউ ধর্তব্যের মধ্যেই আনছিলো না- রাজনৈতিক অঙ্গনে, সংবাদ মাধ্যমে এমোনকি হাসি মস্করাও করা হচ্ছিলো ব্যাপক বিস্তৃতভাবে যাঁকে নিয়ে সেই ডনাল্ড ট্রাম্পই এখন হতে চলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫ তম প্রেসিডেন্ট। বুধবার কাকভোরে নিউইয়র্কে বিজয়-উল্লাসে ভরা এক সমাবেশে পরিবার পরিজন,শীর্ষ সহকারী পরিবেস্টিত বিজয় আভায় উচ্ছ্বসিত ট্রাম্প বললেন- এই ভূমিভাগের প্রতিটি নাগরীককে আমি কথা দিচ্ছি, আমি প্রেসিডেন্ট হবো এ্যামেরিকার সকল মানুষের জন্যেই।

প্রেসিডেন্ট ওবামা তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন- ফোনে, বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে তাঁর সঙ্গে দেখা করার জন্যে তাঁকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করলেন প্রেস সচিব জশ আর্নেস্ট। বছরের গোড়াতেই প্রেসিডেন্ট শীর্ষ অগ্রাধিকার চিহ্নিত যে বিষয়টির উল্লেখ করেছিলেন তা হ’লো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ব্যক্তির হাতে ক্ষমতা হস্তন্তর করা নির্বিঘ্নে- মসৃন প্রক্রিয়ায়।

কোনোদিন জন প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেননি- একেবারেই ভিন্নতর কায়েদায় নির্বাচনের প্রচারণা চালিয়ে জিতলেন যিনি এ ভোটে তাঁর জন্যে এ বিজয় যে কি অভাবনীয় বিষয় তা বোধকরি বলার অপেক্ষা রাখেনা ।

রেপাবলিকান প্রার্থী হিসেবে ভোটে জিতলেন ট্রাম্প- অন্যুন ২৮৮ ইলেকটোরাল ভোট পেয়েছেন ইনি- তাঁর বিপরিতে ডেমোক্র্যাট বিজেতা প্রার্থী ক্লিনটন পেয়েছেন ২১৫ ইলেকটোরাল ভোট- অন্তত: বুধবারের এই মুহুর্ত অবধি হিসেব নিকেশে তেমনটাই দেখা যাচ্ছে।ইলেকটোরাল ভোটে জিতেও ট্রাম্প কিন্তু জনগনের সাধারণ ভোট পপুলার ভোটে কিছুটা পিছিয়ে বলেই এখনো অব্দি তেমনটাই প্রতিয়মান হচ্ছে।। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন-ইতিহাসে এই নিয়ে মাত্রই চতুর্থ বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বিজয়ী প্রার্থী পপুলার ভোটে জিতলেন না – প্রেসিডেন্ট হলেন কেবলই ইলেকটোরাল ভোট অর্থাৎ কিনা জনগনের ভোটে নির্বাচিত কংগ্রেস আসন ৫৩৮ ইলেকটোরাল ভোটের নিরংকুশ সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটের জোরে বলিয়ান হয়ে।

ট্রাম্পের এ বিজয় জনমত সমীক্ষাকে অথর্ব প্রমানিত করেছে বিপুলভাবে- যে জনমত সমীক্ষায় ক্লিনটন তিন-চার পয়েন্টে জিতবেন বলে বলা হয়েছিলো। জনমত সমীক্ষার অনেক ক’টিতেই ক্লিনটন জিতবেন বলে ৯০ শতাংশ সম্ভাবনার উল্লেখ করা হয়েছিলো।

তামাম দুনিয়ার মানুষ সেই সঙ্গে রাজনৈতিক অঙ্গনের – প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিতা বুধবার সকালে ঘুমের ঘোর থেকে জেগে উঠেই শুনলেন – যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট – নবনির্বাচীত ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের কথা।ওয়াশিংটনের সঙ্গে রাশিয়ার যে সংকটাপন্ন দুরুহ সময় অতিক্রান্ত হচ্ছে এখন- সিরিয়া, য়ুক্রেইনে সংঘাত জেরবার করছে যখন গণ মানুষের জীবন যাপনের ধারা – ইসলামিক স্টেইটের তৎপরতা- চীনের আচরন প্রকৃতি – এসব কিছুর প্রেক্ষাপটে এ খবর, ডনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন – এটা যে বিশেষ তাৎপর্য্য বহন করে – কোনো সন্দেহ নেই তাতে – পর্যবেক্ষক মহলের ধারনা তাই।

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে’ সতর্ক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করায় সাবধানতা অবলম্বন করেছেন- জার্মানীর চান্সেলার এ্যাঙ্গেলা মার্কেল নির্বাচনী প্রচারনার সময়টাতেই কোন পক্ষের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করা থেকে বিরত থেকেছেন- ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়াঁ ওলান্দ ট্রাম্পের সমালোচনা করেছেন ভিন্নভাবে- বিশ্ব নেতৃবৃন্দের অনেকেরই মতামত- প্রতিক্রিয়া এখনো অব্দি ব্যক্ত হতে শোনা যায়নি।

জাপানে নিকে সূচকে এক পর্যায়ে ৫ দশমিক আট শতাংশ হ্রাস দেখা যায়- হংকংয়ের হাংসেং সূচকে অধোগতি দেখা যায় যুক্তরাষ্ট্রে শেয়ার হার পড়েছে চার শতাংশ।

XS
SM
MD
LG