অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্ব ক্যান্সার দিবস: ক্যান্সার প্রতিরোধে প্রয়োজন ভ্রান্ত ধারণা নিরসন


আঙ্গুর নাহার মন্টি
ঢাকা রিপোর্টিং সেন্টার
সহযোগিতায় - ইউএসএআইডি ও ভয়েস অফ আমেরিকা

প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া না হলে ২০০৫ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে ক্যান্সারের কারণে সারা বিশ্বে প্রায় আট কোটি ৪০ লাখ মানুষ মারা যাবে। বেশ কয়েক বছর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এই তথ্য দিয়েছে। আর এর বহু আগেই ক্যান্সারের ভয়াবহতা উপলব্ধি করে বিশ্বজুড়ে সচেতনতা তৈরি করতে আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ইউনিয়ন অব ইন্টারন্যাশনাল ক্যান্সার কন্ট্রোল (ইউআইসিসি)ও ডব্লিউএইচও’র উদ্যোগে প্রতিবছর ৪ ফেব্রুয়ারি ‘বিশ্ব ক্যান্সার দিবস’ পালন করা হয়ে থাকে। সারা বিশ্বের মতো এবার বাংলাদেশেও ‘Debunk the Myths’ বা ‘ক্যান্সার প্রতিরোধে ভ্রান্ত ধারণা দূর করতে হবে’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করা হবে।
বাংলাদেশে এই মুহুর্তে কত লোক ক্যান্সারে ভুগছে সে সম্পর্কে সঠিক কোন পরিসংখ্যান নেই। তবে বলা হয়, বর্তমানে এদেশে ১০ লাখের বেশি ক্যান্সার রোগী রয়েছে। আর প্রতি বছর নতুন করে আরো দুই লাখ মানুষ ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে। বাংলাদেশের নারীদের সাধারণত জরায়ু ও স্তন ক্যান্সার বেশি হয়। আর পুরুষদের ক্ষেত্রে বক্ষ, মূত্রনালী ও পাকস্থলীর ক্যান্সার হয়ে থাকে। তবে বেশিরভাগ ক্যান্সার রোগীই শেষ মুহুর্তে চিকিৎসকের কাছে আসেন। এ ব্যাপারে প্রশমন সেবা বিশেষজ্ঞ ডা. রুবাইয়াত রহমান বলেন, “রোগীরা আমাদের দেশে এমন পর্যায়ে আমাদের কাছে আসেন যখন তাদের তুলে আনা যায় না। কারণ এদেশে যথাযথ স্ক্রিনিং পদ্ধতি নেই, স্বাস্থ্যনীতিতেও নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার মধ্যে থাকার কোন ব্যবস্থা নেই। ফলে প্রাথমিক পর্যায়ে ক্যান্সার ধরা পড়ে না”।
এদিকে ক্যান্সারের সুনির্দিষ্ট কারণ এখনো পুরোপুরি জানা সম্ভব হয়নি। তবে ক্যান্সার নিয়ে অনেক ভ্রান্ত ধারণা আমাদের সমাজে প্রচলিত রয়েছে। এ প্রসঙ্গে ডা. রুবাইয়াত বলেন, কারো কাছে ক্যান্সার একটি সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা, আবার কারো কাছে চিকিৎসা নিলেই একেবারে ভাল হয়ে যাবে এমন রোগ। আবার কেউ মনে করেন, ক্যান্সার রোগীর পাশে থাকলে তাদেরও ক্যান্সার হয়ে যাবে। এগুলো সবই ভুল ধারণা।
তিনি আরো জানান, ক্যান্সার আসলে কখনই পুরোপুরি সেরে যায় না। তবে চিকিৎসার মাধ্যমে তা প্রশমন করে রাখা যায়। আর কষ্ট কমিয়ে একটু প্রতিরোধ করা যায়।
খাদ্যে কেমিক্যালের ব্যবহার ও পরিবেশ দূষণসহ নানা কারণে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তাই ক্যান্সার প্রতিরোধে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টি এখন সময়ের দাবী।
XS
SM
MD
LG