অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বেগম রোকেয়ার স্মৃতি বিজড়িত রংপুরেঅনুষ্ঠিত হলো নারী ও উন্নয়ন মেলা ২০১৪


এ মেলার উদ্বোধন করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি

এ মেলার উদ্বোধন করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি

আঙ্গুর নাহার মন্টি
ঢাকা রিপোর্টিং সেন্টার
সহযোগিতায় - ইউএসএআইডি ও ভয়েস অফ আমেরিকা

নারী মুক্তির অগ্রদূত বেগম রোকেয়া সাখাওয়াতের জন্মভূমি রংপুরে গত মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো তিনদিনের ‘নারী ও উন্নয়ন মেলা ২০১৪’। যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ইউএসএআইডি বাংলাদেশ এবং বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এ মেলার উদ্বোধন করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

‘নারীর অগ্রগতি উন্নয়নের চাবিকাঠি’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউএসএআইডি বাংলাদেশের মিশন ডিরেক্টর ইয়ানিনা ইয়ারুজেলস্কি, রংপুর-৫ (মিঠাপুকুর) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এন আশিকুর রহমান, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু ও রংপুর বিভাগীয় কমিশনার দেলোয়ার বখত । এই মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা। উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কে এম নূরুন নবী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউএসএআইডি’র জেন্ডার বিশেষজ্ঞ মাহমুদা রহমান খান।

নারী জাগরণের প্রবক্তা বেগম রোকেয়ার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী মেহের বলেন, নারীরা যদি নিজেদের অধিকার নিজেরা না বুঝতে পারে তাহলে কেউ তাদের সেই অধিকার সম্পর্কে বোঝাতে পারবে না।

তিনি উপস্থিত সকলের প্রতি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, একদিন নারীরা যদি বিদ্রোহ করে যে, আমরা আর সৃষ্টি করবো না।কারণ আমাদেরকে সমান অধিকার দেওয়া হয় না। তাহলে এই বিশ্ব কোথায় যাবে?

নারীর ক্ষমতায়নে বর্তমান সরকার যথেষ্ট আন্তরিক একথা উল্লেখ করে তিনি জানান, (বাংলাদেশ) নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে বিশ্বে মডেল হিসেবে স্বীকৃত হয়ে গেছে।

ইয়ানিনা ইয়ারুজেলস্কি নারীর ক্ষমতায়ন ও নারীর অধিকার রক্ষায় বাংলাদেশ সরকারের ভূমিকা ও সফলতার প্রশংসা করে বলেন, শত বছর আগে বেগম রোকেয়া এমন একটি সমাজের স্বপ্ন দেখেছিলেন, যেখানে মেয়ে ও নারীরা ছেলে ও পুরুষের সাথে সম অবস্থানে থাকবেন। প্রেরণাদায়ী নেত্রী রোকেয়া স্বপ্ন দেখেছিলেন সর্বস্তরে সম অধিকারের যেখানে নারীরা শিক্ষিত হয়ে উঠবেন এবং সম সুযোগ পাবেন। এ মেলায় এ পর্যন্ত বাংলাদেশে নারীর অর্জনগুলো উদযাপন করা হবে।

রাজধানী থেকে সুদূর রংপুরে এই নারী ও উন্নয়ন মেলাকে কেন্দ্র করে ভয়েস অফ আমেরিকা ও ইউএসএআইডি’র উদ্যোগে স্থানীয় সাংবাদিকদের জন্য কর্মশিবির ও নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ক টাউন হল মিটিংও অনুষ্ঠিত হয়। বেগম রোকেয়ার স্মৃতি বিজড়িত স্থানে এমন আয়োজনের ব্যাপারে ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা সার্ভিসের প্রধান রোকেয়া হায়দার বলেন, “আজ থেকে শতবর্ষ আগে বেগম রোকেয়া এক অন্তপুরবাসিনী নারীর উন্নয়ন ও নারীর শিক্ষা সম্পর্কে যে আদর্শের স্বপ্ন দেখেছিলেন তারই যেন প্রতিফলন ঘটছে এখন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে। ইউএসএআইডি আয়োজিত তিনদিনের মেলা নারী প্রগতি ও নারীর অগ্রগতির ধারণা নিয়ে এক চমতকার ব্যবস্থা। এখানে শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবাসহ বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশের মতো একটি দেশ যেখানে জনসংখ্যার অর্ধেক নারী, তাদের উন্নয়ন ও অগ্রগতি ছাড়া দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই আমি বলবো ইউএসএআইডি’র এই আয়োজন সার্থক হয়েছে, সুন্দর হয়েছে”।

নারী অধিকার, উন্নয়ন ও ক্ষমতায়ন নিয়ে কাজ করছে এমন অর্ধশতাধিক সরকারি-বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ও দাতা সংস্থা এই মেলার ৭০টি স্টলে অংশ নিয়েছিল। নারী-পুরুষের সম অধিকার বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে মেলার পাশাপাশি তিনদিনই বিভিন্ন সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
XS
SM
MD
LG