অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শীতের রোগ বালাই।


শীতের রোগ বালাই ।
শীতে ঘুম থেকে উঠলেই দেখা যায় প্রকৃতি কুয়াশাচ্ছন্ন, আর সবুজ ঘাসে জমে আছে বিন্দু বিন্দু শিশির । শীতের এই শুরুটা উপভোগ্য হলেও শুষ্ক আবহাওয়া সাথে কম তাপমাত্রা আর ধূলোবালির উপদ্রব, সব মিলে সৃষ্টি হয় বাড়তি কিছু স্বাস্থ্যগত সমস্যা । তাই প্রয়োজন বাড়তি কিছু সতর্কতা ।

শীতে প্রধানত বাড়ে শ্বাসতন্ত্রের রোগ । যদিও এসবের প্রধান কারণ ভাইরাস । আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট যেসব এনজাইম আছে, তা স্বাভাবিকের চেয়ে কম তাপমাত্রায় কম কার্যকর হয়ে পড়ে । ফলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কিছুটা দুর্বল হয়ে যায় । শীতে সমস্যার মধ্যে প্রথমেই চলে আসে সাধারণ সর্দি কাঁশির কথা বা কমন কোল্ড ।
স্কয়ার হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. ফাজিয়া রাহলা বললেন সাধারণ সর্দি-কাশি ছাড়াও শিশু এবং প্রবীণদের নিওমোনিয়া,শ্বাসকষ্ট এবং যেহেতু শীতে বাতাসের আদ্রতা কমে যায় তাই শরীরে এবং মাথার ত্বকের শুস্কতার সমস্যা হতে পারে ।

এই রোগগুলোর লক্ষণগুলোও খুব পরিচিত আমাদের কাছে । গলা ব্যথা, খুশ খুশ ভাব ও শুকনা কাশি, নাক বন্ধ, নাক দিয়ে অনবরত পানি ঝরতে থাকা এবং ঘন ঘন হাঁচি । সাথে হালকা জ্বর, শরীর ব্যথা, মাথা ব্যথা, শরীর ম্যাজ ম্যাজ করা, দুর্বল লাগা ও ক্ষুধামন্দা দেখা দেয় বললেন ডা.রাহলা ।

শীতে ভাইরাসজনিত ইনফ্লুয়েঞ্জাও বেশি মাত্রায় দেখা যায় সাথে থাকে ফুসফুস, সাইনাস, কান ও টনসিলের প্রদাহ । এছাড়া ভাইরাস আক্রান্তের সুযোগে অনেক সময় ব্যাকটেরিয়াও আক্রমণ করে থাকে । বিশেষ করে নাকের সর্দি যদি খুব ঘন হয় বা কাশির সঙ্গে হলুদাভ কফ আসতে থাকে, যা ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণকেই নির্দেশ করে । তখন অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক ওষুধ সেবন করতে হবে । যদি কোন কারনে ডাক্তারের শরনাপন্ন না হওয়া যায় তাহলে সাধারন সর্দি-কাশির জন্য হিস্টামিন জাতীয় ওষুধ সেবন করা যেতে পারে ।

সারা বছর মোটামুটি ভালো থাকলেও এই সময়ে তীব্র হাঁপানির আক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি বেশি । শ্বাসকষ্ট এবং হাঁপানি নিয়ে আমাদের দেশে কিছু ভুল ধারনা বিদ্যমান আছে । দুটি আসলে দুই ধরনের রোগ । হাঁপানি মূলত শ্বাসতন্ত্রের একধরনের অতিসংবেদনশীলতা । জন্মগতভাবেই হাঁপানি রোগীরা ধুলা, ঠান্ডা বাতাস, ফুলের রেণু, পশুপাখির লোম ইত্যাদি সহ্য করতে পারে না । এসবের সংস্পর্শে এলেই রক্তের কিছু কণিকা কয়েকটি রাসায়নিক পদার্থ তৈরি করে, যার প্রভাবে শ্বাসনালি সংকুচিত হয় আর শুরু হয়ে যায় শ্বাসকষ্ট । হাঁপানিতে আক্রান্ত ছোট শিশুদের এ সময় খুবই কষ্ট হয় । তাই আগে থেকেই সাবধান হওয়া ভালো ।
শরীফ উল হক,
ঢাকা রিপোটিং সেন্টার।
সহযোগিতায়- ইউএসএআইডি এবং ভয়েস অব আমেরিকা।
প্রযোজনায় – রেডিও টুডে প্রাইভেট লিমিটেড।

XS
SM
MD
LG